নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশে জঙ্গিবাদের মূল পৃষ্ঠপোষক বিএনপি; ২০ দলীয় জোটেই জঙ্গি সদস্যরা রয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ। তিনি আরও বলেন, জঙ্গিবাদ পৃথিবীব্যাপী এক সমস্যা। এর কারণে অনেক উন্নত দেশে শত শত নিরপরাধ মানুষ নিহত হয়েছেন। তবে উন্নত দেশের চেয়ে ভালো ও সার্থকভাবে জঙ্গিবাদ দমন করতে পেরেছে বাংলাদেশ। তবে তাদের সাথে আমাদের মৌলিক পার্থক্য হচ্ছে, আমাদের রাজনৈতিক দলগুলোই জঙ্গিবাদের মদতদাতা। বিএনপি শুধু জঙ্গিবাদের মদতদাতা নয়, জালিয়াতির সঙ্গেও যুক্ত বলে অভিযোগ করে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, নির্বাচনে অংশ নেওয়ার উদ্দেশ্যে কিছুদিন আগে খালেদা জিয়া বিএনপির সদস্যপদ নবায়ন করেছেন। সেখানে বয়স, পেশা ও শিক্ষাগত যোগ্যতার কোনো উল্লেখ নেই। শুধু নাম রয়েছে। এটা জালিয়াতি ছাড়া আর কী হতে পারে? সোমবার দ?ুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটি আয়োজিত ‘জঙ্গিবাদ দমনে রাজনৈতিক দলগুলোর ভূমিকা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন তিনি। ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ২৬ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হাসিবুর রহমান মানিকের সভাপতিত্বে এ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সাবেক বন ও পরিবেশ মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন সাবেক স্বরাষ্ট্র পতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু, জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি আলহাজ শুক্কুর মাহমুদ, জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগের সভাপতি এম এ জলিল, আওয়ামী লীগ নেতা এম এ করিম প্রমুখ। এ সময় বক্তারা বলেন, শিক্ষক ও মসজিদের ইমামরা একত্রে জনগণের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির চেষ্টা করলে জঙ্গিবাদ গোড়া থেকে নির্মূল করা সম্ভব। সরকার জঙ্গি দমনে জিরো টলারেন্স দেখিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ ক্ষেত্রে ব্যাপক সফলতা ইতোমধ্যেই দেখিয়েছেন। স্বাধীনতা যারা চায়নি তারাই আজকের জঙ্গি। এর শুরু হয়েছিল বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মাধ্যমে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শকে সামনে রেখে কাজ করলেই জঙ্গি নির্মূল করা সম্ভব বলে জানান বক্তারা।

Share Button