বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বিরুদ্ধে দায়ের করা মানহানি মামলার কার্যক্রম স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট।

একইসঙ্গে তাকে কেন স্থায়ী জামিন দেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুলও জারি করেছেন আদালত।

বুধবার এ সংক্রান্ত আবেদন শুনানি নিয়ে হাইকোর্টের বিচারপতি মো. মিফতাহ উদ্দিন চৌধুরী ও বিচারপতি এ এন এম বসির উল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে আজ মির্জা ফখরুলের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন। তার সঙ্গে ছিলেন অ্যাডভোকেট সগীর হোসেন লিয়ন।

সগীর হোসেন লিয়ন সাংবাদিকদের জানান, আদালত মামলা বাতিলে রুল জারি করেছেন। এ রুল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত মামলার কার্যক্রমের ওপর স্থগিতাদেশ দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালের ২৪ আগস্ট নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজে খুনি, তার দল আওয়ামী লীগ একটি খুনের দল হিসেবে পরিচিত, সারা জাতি ও বিশ্ববাসী তা জানে’ বলে মন্তব্য করেন।

পরে ১ সেপ্টেম্বর ঢাকার মহানগর হাকিম স্নিগ্ধা রানীর আদালতে আওয়ামী মৎসজীবী লীগের সহ-সভাপতি নূরে আলম সিদ্দিকী ফখরুলের ওই বক্তব্যে আওয়ামী লীগ ও আওয়ামী লীগের নেত্রী শেখ হাসিনাকে সামাজিক ও আন্তর্জাতিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার অভিযোগে মামলা দায়ের করেন।

চলতি বছরের ৯ জুলাই মামলায় অভিযোগ গঠন করেন আদালত।

এরপর মামলা বাতিলের জন্য হাইকোর্টে আবেদন করেন মির্জা ফখরুল। ওই আবেদন শুনানিতে আদালত আজ এই আদশে দেন।

Share Button