টেস্ট ও টি ২০তে আগে থেকেই দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক তিনি। সম্প্রতি এবি ডি ভিলিয়ার্স ওয়ানডে দলের অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেয়ার পর ধারণা করা হচ্ছিল এ দায়িত্বটাও পেতে যাচ্ছেন ফাফা ডু প্লেসি। শেষ পর্যন্ত তাই হল। এখন থেকে তিন ফরম্যাটেই দক্ষিণ আফ্রিকাকে নেতৃত্ব দেবেন ডু প্লেসি। সোমবার রাতে আনুষ্ঠানিকভাবে ওয়ানডে দলের নতুন অধিনায়ক হিসেবে তার নাম ঘোষণা করেছে ক্রিকেট সাউথ আফ্রিকা (সিএসএ)। বাংলাদেশের বিপক্ষে আসন্ন হোম সিরিজেই এক অধিনায়কের যুগে ফিরতে যাচ্ছে প্রোটিয়া ক্রিকেট। মজার ব্যাপার হল, এ সিরিজেই প্রথমবারের মতো তিন অধিনায়কের যুগে প্রবেশ করবে বাংলাদেশ ক্রিকেট। দীর্ঘ নয় বছর পর পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে ১৬ সেপ্টেম্বর দক্ষিণ আফ্রিকায় উড়াল দেবে বাংলাদেশ দল। ২৮ সেপ্টেম্বর থেকে টেস্ট দিয়ে শুরু হবে সিরিজ। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে দুটি টেস্ট, তিনটি ওয়ানডে ও দুটি টি ২০ খেলবে টাইগাররা। টেস্টে বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দেবেন মুশফিকুর রহিম, ওয়ানডেতে মাশরাফি মুর্তজা এবং টি ২০তে সাকিব আল হাসান। এই প্রথম কোনো সিরিজে তিন ফরম্যাটে ভিন্ন তিন অধিনায়কের নেতৃত্বে খেলবে বাংলাদেশ। অন্যদিকে ২০১০ সালের পর আবার এক অধিনায়কের যুগে ফিরছে দক্ষিণ আফ্রিকা। তিন ফরম্যাটে দক্ষিণ আফ্রিকার সর্বশেষ অভিন্ন অধিনায়ক ছিলেন গ্রায়েম স্মিথ। তার অবসরের পর বিভিন্ন সময়ে তিন ফরম্যাটেই দক্ষিণ আফ্রিকাকে নেতৃত্ব দিয়েছেন ডি ভিলিয়ার্স। দলের সেরা ব্যাটসম্যান হলেও ওয়ানডেতে দলকে কাক্সিক্ষত সাফল্য এনে দিতে পারেননি তিনি। ছয় বছরে ডি ভিলিয়ার্সের নেতৃত্বে ১০৩টি ওয়ানডের মাত্র ৫৯টিতে জিতেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। ২০১৩ সালে টি ২০ দলের নেতৃত্বের ব্যাটন ডু প্লেসির হাতে তুলে দেন ডি ভিলিয়ার্স। সেই ধারাবাহিকতায় গত বছর টেস্ট দলের নেতৃত্ব পান ডু প্লেসি। ইনজুরির সঙ্গে লড়াই করে খেলোয়াড়ি জীবন আরও দীর্ঘায়িত করতে গত মাসে ওয়ানডে দলের নেতৃত্বও ছেড়ে দেন ডি ভিলিয়ার্স। এবারও তার উত্তরসূরি হিসেবে ডু প্লেসিকে বেছে নিল সিএসএ। অধিনায়ক হিসেবে দারুণ সফল ৩৩ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যান। ডি ভিলিয়ার্সের অনুপস্থিতিতে ডু প্লেসির নেতৃত্বে নয় ওয়ানডের আটটিতে জিতেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। এ মুহূর্তে পাকিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি ২০ সিরিজে বিশ্ব একাদশকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন ডু প্লেসি। ২০১৯ বিশ্বকাপ সামনে রেখে ওয়ানডে দলের স্থায়ী অধিনায়ক হিসেবে তাকে বেছে নিতে দু’বার ভাবতে হয়নি সিএসএ’কে। বোর্ডের প্রধান নির্বাহী হারুন লরগাতও সেটাই জানালেন, ‘ওয়ানডে অধিনায়ক হিসেবে ফাফ ছিল সহজাত পছন্দ। বিশ্ব ক্রিকেটে অন্যতম সেরা অধিনায়ক হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছে সে। পাকিস্তানের বিপক্ষে টি ২০ সিরিজে বিশ্ব একাদশের অধিনায়ক হিসেবে তার নিয়োগেই সেটা প্রতিফলিত হয়েছে।’ এএফপি/ক্রিকইনফো।

Share Button