জাপানে সোমবার শক্তিশালী টাইফুনের আঘাতে দুজন মারা গেছে এবং তিনজন নিখোঁজ রয়েছে বলে জানিয়েছেন দেশটির কর্মকর্তারা।

জাপানের আবহাওয়া সংস্থা জানায়, তালিম নামের এ টাইফুন জাপানের দক্ষিণাঞ্চলীয় কিউশু দ্বীপপুঞ্জে আঘাত হানে।

এ সময় ঘণ্টায় বাতাসের সর্বোচ্চ গতি ছিল ১৬২ কিলোমিটার।

জাপানের উত্তর-পূর্ব দিকে অগ্রসর হওয়া ঝড়টি সোমবার সকালে হোক্কাইডো দ্বীপে পৌঁছায়।

এর প্রভাবে সেখানে প্রচুর বৃষ্টিপাত হচ্ছে এবং পরিবহন ব্যবস্থা অচল হয়ে পড়েছে।

স্থানীয় পুলিশ জানায়, রোববার রাতে ৮৬ বছর বয়সী এক নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

জাপানের পশ্চিমাঞ্চলীয় কাগাওয়ায় এক ভূমিধসের ঘটনায় তার বাড়ি চাপা পড়ার পর এ বৃদ্ধার লাশ উদ্ধার করা হলো।

এ ছাড়া ৬০ বছর বয়সী এক গাড়িচালকের লাশ তার গাড়ির ভেতর থেকে উদ্ধার করা হয়।

জাপানের পশ্চিমাঞ্চলীয় কোচিতে স্রোতময় এক নদীতে গাড়িটি ডুবে ছিল।

জাপানের সরকারি সম্প্রচার কেন্দ্র এনএইচকে পরিবেশিত খবরে বলা হয়, এ অঞ্চলে এখনো তিনজন নিখোঁজ রয়েছেন এবং টাইফুনসংক্রান্ত বিভিন্ন দুর্ঘটনায় ৩৮ জন আহত হয়েছেন।

এনএইচকে জানায়, প্রচণ্ড ঝড়ের কারণে সোমবার কমপক্ষে ১১৬টি ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে।

এ ছাড়া ঝড়ের কারণে জাপানের উত্তরাঞ্চলে কয়েকটি বুলেট ট্রেন সার্ভিস স্থগিত করা হয়েছে।

কর্তৃপক্ষ টাইফুনের কারণে প্রচণ্ড ঝড়বৃষ্টি, উচ্চ সামুদ্রিক ঢেউ, ভূমিধস ও বন্যার সতর্কতা জারি করেছে। সূত্র: বাসস

Share Button