২০১৬-১৭ মেয়াদে বিশ্বের শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে উঠে এসেছে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম। এর আগের মেয়াদে (২০১৫-১৬) দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল ইংরেজি ভাষাভাষী দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে পুরনো এ বিশ্ববিদ্যালয়। টাইমস হায়ার এডুকেশনের জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে।

উচ্চশিক্ষায় বিভিন্ন জরিপে যুক্তরাজ্যের নেতৃত্বস্থানীয় প্রকাশনা টাইমস হায়ার এডুকেশন। সাপ্তাহিক এ সাময়িকীটি প্রতি বছর বিশ্বের শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর তালিকা প্রকাশ করে থাকে। পাঁচটি বিভাগে মোট ১৩টি আলাদা সূচকে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মান নির্ধারণ করা হয়। আবিষ্কার কিংবা গবেষণা থেকে আয়, আন্তর্জাতিক বৈচিত্র্য, শিক্ষাব্যবস্থা, গবেষণা এবং গবেষণার প্রভাব- এ পাঁচটি বিভাগের ওপর ভিত্তি করে মান নির্ধারণ করে টাইমস হায়ার এডুকেশন।

জরিপে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ক্যালিফোর্নিয়া ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজি, যেটি ক্যালটেক নামেই সুবিখ্যাত। আগেরবার শীর্ষে থাকলেও এবার একধাপ পতন ঘটেছে বেসরকারি মালিকানাধীন এ বিশ্ববিদ্যালয়ের। নাসার স্বায়ত্তশাসিত জেট প্রোপালশন ল্যাবরেটরিও রয়েছে এখানে।

র‌্যাংকিংয়ে তৃতীয় স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়। যুক্তরাষ্ট্রের অন্যতম সেরা এ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়টি আগেরবারও র?্যাংকিংয়ে তিন নাম্বারে ছিল। গতবারের র‌্যাংকিংয়ে তৃতীয় থেকে দশম স্থান পর্যন্ত সব বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থানে এবার কোনো নড়চড় হয়নি।

চতুর্থ থেকে দশম স্থানীয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলো হচ্ছে- ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়, ম্যাসাচুসেটস ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজি (এমআইটি), হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়, প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয়, ইমপেরিয়াল কলেজ লন্ডন, সুইস ফেডারেল ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজি ও ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়। এ তালিকায় বাংলাদেশের জন্য কোনো সুখবর নেই।

টাইমস হায়ার এডুকেশন ৯৮০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকা করেছে। এর মধ্যে বাংলাদেশের কোনো বিশ্ববিদ্যালয় জায়গা করে নিতে পারেনি। বিশ্বে বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর অবস্থান নিয়ে আরেকটি ফিচার প্রকাশিত হবে।

Share Button