আসন্ন ও জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষায় ছাত্রদের তুলনায় ছাত্রীর সংখ্যা ১ লাখ ৭৯ হাজার ২৬৪ জন বেশি। আগামী ১ নভেম্বর শুরু হবে এ পরীক্ষা। চলবে ১৮ নভেম্বর পর্যন্ত।

আজ বুধবার সচিবালয়ে এই পরীক্ষা নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এ তথ্য জানান।

এবারে জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) এ দুই পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থী ২৪ লাখ ৬৮ হাজার ৮২০ জন। এর মধ্যে ছাত্রীর সংখ্যা ১৩ লাখ ২৪ হাজার ৪২। আর ছাত্র ১১ লাখ ৪৪ হাজার ৭৭৮।

শিক্ষামন্ত্রী জানান, এই দুই পরীক্ষায় গতবারের চেয়ে মোট পরীক্ষার্থীও বেড়েছে।

এবার আসন্ন জেএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরুর আধা ঘণ্টা আগে পরীক্ষার্থীদের অবশ্যই কেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে। গতকাল মঙ্গলবার সচিবালয়ে ওই পরীক্ষা নিয়ে আইনশৃঙ্খলা–বিষয়ক জাতীয় তদারক কমিটির সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়।

গতকাল মন্ত্রী আরও জানিয়েছিলেন, পরীক্ষা চলাকালে শুধু কেন্দ্র সচিব যোগাযোগের জন্য একটি সাধারণ মানের মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন। পরীক্ষার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট আর কেউ পরীক্ষা চলাকালে কোনো মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন না।

আধঘণ্টা আগে জেএসসি পরীক্ষার্থীদের কেন্দ্রে ঢুকতে হবে

আসন্ন জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও সমমানের পরীক্ষা শুরুর আধা ঘণ্টা আগে পরীক্ষার্থীদের অবশ্যই কেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে।

আজ মঙ্গলবার সচিবালয়ে ওই পরীক্ষা নিয়ে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক জাতীয় তদারক কমিটির সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়। সভা শেষে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এই সিদ্ধান্তের কথা জানান।

একই সঙ্গে মন্ত্রী বলেন, পরীক্ষা চলাকালে শুধুমাত্র কেন্দ্র সচিব যোগাযোগের জন্য একটি সাধারণ মানের মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন। পরীক্ষার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট আর কেউ পরীক্ষা চলাকালে কোনো মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন না।

আগামী ১ নভেম্বর শুরু হবে জেএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। চলবে ১৮ নভেম্বর পর্যন্ত।

সভায় শিক্ষামন্ত্রী প্রশ্ন ফাঁস রোধে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়া কথা তুলে ধরেন। সভায় মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব সোহরাব হোসাইন বলেন, ব্যক্তিগতভাবে তিনি মনে করেন, পাবলিক পরীক্ষা থেকে এমসিকিউ পদ্ধতি সম্পূর্ণ বন্ধ করে দেওয়া উচিত।

সভায় বিভিন্ন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতিনিধিরা তাদের মতামত তুলে ধরেন।

Share Button