চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি॥
চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাটে শীতের শুরুতেই কন্কনে ঠান্ডায় জনজীবনে আত্মংক। বেশ ক’দিন ধরে রাত থেকে সকল পর্যন্ত ঘন কুয়াশা আর কন্কনে ঠান্ডা শুরু হয়েছে। খেটে খাওয়া মানুষ কাজে বের হতে হিমসিম খাচ্ছে। শীতের জামা-কাপড় জড়িয়েছেন এ এলাকার মানুষ। তাপমাত্রা ১৫ ডিগ্রীতে নেমে এসেছে। এলাকার মোড়ে মোড়ে সাজিয়ে বসেছে গরম জামা-কাপড় বিক্রির দোকান। গত শনিবার থেকে ভোলাহাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ঠান্ডা জনিত রুগীর সংখ্যাও বেড়েছে। ভোলাহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দায়িত্বরত আউটডোরের চিকিৎসক মেহেদী জানান, গত শনিবার থেকে আউটডোরে প্রায় ৩০ থেকে ৩২জন করে ঠান্ডা জনিত রোড়ে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিতে আসছেন। এ ছাড়া ভর্তি রয়েছেন বেশ কিছু রুগী চিকিৎসা গ্রহণ করছেন। এলাকার সচেতনমহল বলছেন, এবার শীতের শুরুতেই প্রচন্ড ঠান্ডার আগম দেখা দিয়েছে। ধীরে ধীরে শীত আসলে আরো ঠান্ডা হবে এবং মানুষ চরম দূর্ভোগের শিকার হবে। বজরাটেক গ্রামের সোনা লায়েক বলেন, শীতের শুরুতে যে ভাবে ঠান্ডা দেখা দিয়েছে আগামীতে ভোলাহাটে আরো প্রচন্ড ঠান্ডা দেখা দিতে পারে। ফলে সরকারসহ বেসরকারী ভাবে অসহায় মানুষের পাশে শীতবস্ত্র নিয়ে পাশে দাঁড়ানোর আহবান জানান। এদিকে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা কমান্ডের যুগ্ম আহবায়ক গোলাম কবির আগামী দিনের ঠান্ডা মোকাবিলা করতে শীতবস্ত্র নিয়ে প্রস্ত থাকার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানিয়েছেন।

Share Button