বাগেরহাট প্রতিনিধি॥
বাগেরহাটের শরণখোলায় বিদ্যুতের খুঁটিবাহী আলমসাধু উল্টে হালিম খাঁ  (৫৩) নামে এক শ্রমিক নিহত হয়েছেন। এসময় আহত হন আরও দুজন। মঙ্গলবার বিকালে শরণখোলা-মোরেলগঞ্জ সড়কের শরণখোলা উপজেলা সদরের ব্রাক অফিসের কাছে এই দূর্ঘটনা ঘটে। আহতদের উদ্ধার করে শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এরমধ্যে একজনের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহত হালিম খাঁ শরণখোলা উপজেলার খোন্তাকাটা ইউনিয়নের পশ্চিম খোন্তাকাটা গ্রামের মতি খাঁর ছেলে।অন্য আহতরা হলেন, বিশ^জিৎ মজুমদার (৪৫) ও রুবেল শেখ (২২)।শরণখোলা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ঠাকুর দাস মন্ডল এই প্রতিবেদককে বলেন, শরণখোলা উপজেলা সদরের পল্লী বিদ্যুৎ কার্যালয় থেকে স্যালো ইঞ্জিন চালিত আলমসাধুতে করে একটি বিদ্যুতের খুঁটি নিয়ে নলবুনিয়া এলাকায় যাচ্ছিল। এসময় ওই অমলসাধুটি হঠাৎ ব্রেক করলে তা উল্টে গিয়ে বিদ্যুতের খুঁটির নিচেই অমলসাধুতে থাকা তিন শ্রমিক চাপা পড়ে। পরে স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক হালিম খাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। অন্য দুজনকে ভর্তি করেন। হতাহতরা সবাই পল্লী বিদ্যুতের অস্থায়ী শ্রমিক বলে জানতে পেরেছি। শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক দিবাকর কুমার বসাক বলেন, মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে এদের আঘাত লেগেছে। হালিম খাঁর মাথায় আঘাত লেগেই ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। আহত বিশ^জিৎ মজুমদারের অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। রুবেল শেখকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।##

Share Button