বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, অনেকেই নির্বাচন নিয়ে কথা বলছেন। অনেকেই বলছেন নির্বাচনে দেশনেত্রী ছাড়া যাব না। একথা ঠিক না। আমরা নির্বাচনে যাবোই, খালেদা জিয়াও নির্বাচনে থাকবেন। বরং আওয়ামী লীগই নির্বাচনে থাকবেন না। কারণ, নিরপেক্ষ নির্বাচন দিলে তো তারা ফেল করবেন।
শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে জাতীয়তাবাদী কৃষকদলের ৩৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব বলেন।
মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা আশাবাদী হয়ে উঠছি অনেক কারণে। শুক্রবার বাংলাদেশের একজন শ্রদ্ধেয় নেতা ড. কামাল হোসেন বলেছেন এই ভয়াবহ সরকারকে সরাতে হলে জাতীয় ঐক্য দরকার। আমার খুব ভাল লেগেছে তিনি এতোদিনে কথাটা উপলব্ধি করতে পেরেছেন। আমরা তো অনেক আগে থেকেই বলে আসছি এই ভয়াবহ সরকারকে সরাতে না পারলে বাংলাদেশের অস্তিত্ব থাকবে না। তাই সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।
তিনি দলের নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, সংগঠন, আন্দোলন এবং নির্বাচনের জন্য এক সঙ্গে প্রস্ততি নিতে হবে। আন্দোলন করেই নির্বাচন আদায় করে ক্ষমতায় যেতে হবে।
বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান ও কৃষক দলের সাধারণ সম্পাদক শামসুজ্জামান দুদুর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমী, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, এম এ তাহের, নাজিম উদ্দীন মাস্টার, তকদির হোসেন মো. জসিম, মো. আলিম হোসেন, অধ্যক্ষ সেলিম প্রমুখ।
Share Button