ভারতের উত্তরপ্রদেশে বিজেপি বিধায়ক কুলদীপ সিংহ সেনগারের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তুলে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের বাড়ির সামনে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন উন্নাওয়ের এক কিশোরী। এবার সেখানে অপর এক বিজেপি বিধায়ক কুশাগ্র সাগরের বিরুদ্ধেও নাবালিকা ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।
উত্তরপ্রদেশের বদায়উঁ জেলার বিসাউলি কেন্দ্রের বিধায়ক কুশাগ্রের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ করেছে তারই সাবেক এক গৃহকর্মীর মেয়ে। তার দাবি, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তাকে ওই বিধায়ক বছরের পর বছর ধরে ধর্ষণ করেছেন। আর এখন সেই প্রতিশ্রুতির কথা মনে করিয়ে দিলে, তাকে খুনের হুমকি দেয়া হচ্ছে। এ ঘটনায় উত্তরপ্রদেশের রাজনীতিতে ফের তোলপাড় শুরু হয়েছে। জানা গেছে, এর আগে ধর্ষণ ও খুনের দায়ে জেলে যেতে হয়েছিল কুশাগ্রের বাবা সাবেক বিজেপি বিধায়ক যোগেন্দ্র সাগরকেও।
কুশাগ্রের বিরুদ্ধে অভিযোগকারী তরুণীর দাবি, ওই বাড়িতে তার মা কাজ করতেন। সেই সূত্রেই কুশাগ্রের সঙ্গে তার আলাপ হয়েছিল। এর পর বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ২০১২-১৪ সালে দিনের পর দিন তাকে ধর্ষণ কারা হয়েছে। নির্যাতিতার অভিযোগ, সেই সময় তিনি নাবালিকা ছিলেন। কুশাগ্র সাগরের বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগে ওই তরুণী জানিয়েছেন, ‘সমাজের কাছে উপহাসের পাত্রী হয়ে উঠেছি। প্রতিকার না পেলে আত্মহত্যা করতে বাধ্য হব।’ টাইমস অব ইন্ডিয়া।
Share Button