স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, মানবিক ও বৈষম্যমুক্ত বিশ্ব প্রতিষ্ঠায় তরুণ সংসদ সদস্যদের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।
তার সঙ্গে ইউএন সেক্রেটারি জেনারেল এর স্পেশাল এনভয় অন ইয়ূথ জায়াথমা বিক্রমানায়েকে আজ মঙ্গলবার তাঁর কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাৎ করলে তিনি এ কথা বলেন। সাক্ষাতকালে তাঁরা তরুণ সংসদ সদস্যদের ভূমিকা, নারী ক্ষমতায়ন, বাল্যবিবাহ রোধ ও যুব উন্নয়ন বিষয়ে আলোচনা করেন।
স্পিকার বলেন, তরুণ সংসদ সদস্যরা ভবিষ্যৎ নেতৃত্ব দিবেন। এ সময় তিনি বর্তমানে বাংলাদেশের রাজনীতিতে তরুণদের অংশগ্রহণ খুবই আশাব্যঞ্জক বলে উল্লেখ করেন।
ড. শিরীন শারমিন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। তথ্য-প্রযুক্তির মহাসড়কে আজ বাংলাদেশের অবস্থান। বর্তমান সরকার তৃণমূল পর্যায়ে ইন্টারনেট সেবা বিস্তৃত করে জনগণের দোরগোড়ায় সেবা পৌঁছে দিয়েছে। তথ্য-প্রযুক্তিতে সক্ষমতা বাড়াতে সরকার প্রতিটি বিদ্যালয়ে শেখ রাসেল কম্পিউটার ল্যাব স্থাপন করেছে যা নতুন প্রজন্মকে ডিজিটাল বাংলাদেশের সঙ্গে যুক্ত করেছে।
ইউএন সেক্রেটারি জেনারেল এর স্পেশাল এনভয় অন ইয়ূথ বলেন, জাতিসংঘ তরুণ নেতৃত্বকে সঙ্গে নিয়ে কাজ করতে আগ্রহী। এ সময় তিনি তরুণ পার্লামেন্টারিয়ানদের দক্ষতাবৃদ্ধি ও অভিজ্ঞতা বিনিময়ের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।
এছাড়া সংসদ ভবনে আজ নাহিম রাজ্জাক এমপির নেতৃত্বে বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের তরুণ সংসদ সদস্যদের সঙ্গে জাতিসংঘ সেক্রেটারি জেনারেল এর স্পেশাল এনভয় অন ইয়ূথ জায়াথমা বিক্রমানায়েকে মতবিনিময় করেন। বাসস
Share Button