দলছুট ব্যক্তিদের ঐক্য যত দফাই দিক কাজ হবে না বলে মন্ত্রব্য করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। তিনি বলেন, আগামী জাতীয় নির্বাচনের জন্য তারা ঐক্য করেছেন, অনেক দাবি-দাওয়া করছেন, এতে লাভ হবে না। আগামী জাতীয় সংসদের নির্বাচন হবে দেশের সংবিধান মোতাবেক।
মঙ্গলবার রাজধানীতে বিশ্ব খাদ্য দিবস-২০১৮ উপলক্ষে আয়োজিত এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। ফার্মগেটস্থ কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে এ সেমিনারের আয়োজন করে কৃষি মন্ত্রণালয়। এরআগে ইনস্টিটিউট প্রাঙ্গণে তিনদিনব্যাপী খাদ্য মেলার উদ্বোধন করেন বাণিজ্যমন্ত্রী।
তোফায়েল আহমেদ বলেন, বর্তমান সরকারের অধীনে নির্বাচন কমিশন নির্বাচন করবেন। নির্বাচন হবে অংশগ্রহণ মূলক ও নিরপেক্ষ। আশা করি, দেশের সকল দলের অংশগ্রহনে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।
বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, খুনিদের দলের সাথে যারা ঐক্য করে, তারা দেশের উন্নতি করতে পারে না। সরকারের ধারাবাহিকতা থাকলে দেশের উন্নতি হয়, তা আজ প্রমানীত।
অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেন, কৃষি জমির সঠিক ব্যবহার, বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে চাষাবাদ এবং সরকারের বিশেষ সহযোগিতায় দেশের কৃষির উৎপাদন বেড়েই চলছে। টেকসই খাদ্য নিরাপত্তার জন্য সরকার কাজ করে যাচ্ছে। অপ্রতিরোধ্য যাত্রায় এখন বাংলাদেশ।
কৃষি মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মো. নাসিরুজ্জামানের সভাপতিত্ব সেমিনারে মূল প্রবদ্ধ উপস্থাপন করেন পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. শামসুল আলম। এসময় বক্তব্য রাখেন এফএও এর বাংলাদেশ প্রতিনিধি রবার্ট ডি. সিম্পসন এবং ঢাকা পুষ্টি ও খাদ্য বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক নাজমা শাহীন। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. মো. কবির ইকরামূল হক।
Share Button