বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ষষ্ঠ আসরের ৩৩ তম ম্যাচে খুলনা টাইটান্সকে ৮০ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। চট্টগ্রাম পর্বের দিনের প্রথম ম্যাচের শুরুতে টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় খুলনা। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে কুমিল্লার সংগ্রহ ৫ উইকেটের বিনিময়ে ২৩৭ রান। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ১৫৭ রানেই গুটিয়ে যায় খুলনার ইনিংস।

ইনিংসের শুরুতে কুমিল্লার পক্ষে ব্যাট হাতে ওপেনিংয়ে নামেন তামিম ইকবাল এবং এভিন লুইস। ব্যক্তগত ২৫ রানে ফেরেন তামিম। তিন নম্বরে মাঠে আসা এনামুল হক ফেরেন ০ রানে। এরপর ইমরুল কায়েসকে সঙ্গে করে জুটি গড়েন লুইস। তবে ব্যক্তিগত ৩৯ রানে ফেরেন ইমরুল। ইমরুলের পর থিসারা পেরেরা ১১ এবং শহীদ আফ্রিদি ১ রানে সাজঘরে ফেরেন। এরপর শামসুর রহমানকে সঙ্গে নিয়েই দলকে রানের পাহাড়ে নিয়ে যান লুইস। ৪৯ বলে ১০৯ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন তিনি। তার ইনিংসে ভর করেই কুমিল্লার সংগ্রহ দাঁড়ায় ২৩৭ রানে।

বল হাতে খুলনার পক্ষে অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ ও কার্লোস ব্রেথওয়েট নেন দুইটি করে উইকেট। এছাড়া শরিফুল ইসলাম নেন একটি উইকেট।

২৩৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট হাতে নেমে ভালোভাবেই শুরু করে খুলনা। প্রথম ৬ ওভারে ওপেনিং জুটি থেকে আসে ৫৫ রান। ওপেনার জুনায়েদ ২৭ রান এবং আরেক ওপেনার টেইলর করেন ৫০ রান। দুই ওপেনারের বিদায়ের পর ১০ বলে ৩ রান করে বিদায় নেন ডেভিড মালান। এরপর অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ ৭ বলে ১১ রান করে সাজঘরে ফেরেন। অধিনায়কের ফেরার পর কার্লোস ব্রাথওয়েইট ২২, নাজমুল হোসেন শান্ত ১৪, আরিফুল হক ২, তাইজুল ইসলাম ১, ডেভিড উইসি ৮, সাদ্দাম হোসেন ০ রান করে ফিরে যান। এতে খুলনার ইনিংস থেমে যায় ১৫৭ রানের মাথায়।

আরও পড়ুন: চরফ্যাশনে অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে গেছে ২৫ দোকান, বিদ্যুৎস্পৃষ্টে গুরুতর আহত একজন

বল হাতে কুমিল্লার পক্ষে ওয়াহাব রিয়াজ ১৯তম ওভারে তিনটি উইকেট নিয়ে হ্যাটট্রিক করেন। একই ওভারে তিনি ফেরান ডেভিড উইসি, তাইজুল ইসলাম এবং সাদ্দাম হোসেনকে। স্পিনার আফ্রিদি তুলে নেন তিনটি উইকেট। মেহেদি হাসান ও মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন নেন একটি করে উইকেট। থিসারা পেরেরা তুলে নেন একটি উইকেট।

Share Button