ক্রিকেট কোচিং করানোর সময় মাঠেই মারা গেলেন প্রাক্তন রঞ্জি ক্রিকেটার এবং কোচ অমৃক সিংহ নাগরা। লুধিয়ানার বাবা ইশার সিংহ স্কুলের মাঠে কোচিং করানোর সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হন এই ৪৯ বছর বয়সী কোচ। এরপর দ্রুত তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তারা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বিষেন সিংহ বেদীসহ জাতীয় পর্যায়ের বহু ক্রিকেটার নাগরার মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করেছেন। বেদীকে নিজের মেন্টর মানতেন নাগরা। তার স্ত্রী ইন্দরজিৎ কউরকে সমবেদনা জানাতে গিয়ে জাতীয় দলের প্রাক্তন অধিনায়ক বেদী বলেন, ‘কী বলব ভেবে পাচ্ছি না। সবসময়ে তোমাদের পাশে রয়েছি। এই মুহূর্তে ভীষণভাবে নিজেকে অসহায় মনে হচ্ছে’।

জানা গেছে, ৩১ তারিখে নাগরার শেষ কৃত্যে হাজির থাকবেন বেদী। এদিকে লুধিয়ানা ডিস্ট্রিক্ট ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি বিনোদ চিতকারা বলেন, ‘অমৃক সিংহ একজন ডেডিকেটেড কোচ। তাঁর মৃত্যুতে ক্রিকেটের অপূরণীয় ক্ষতি হল’।

আরও পড়ুন: বিয়েতে রাজি না হওয়ায় মা-মেয়েকে কুপিয়ে জখম

ক্রিকেট থেকে অবসরের পরে কোচিংয়ে আসেন অমৃক সিংহ। বাবা ইশার সিংহ স্কুলে ১৭ বছর ধরে ফিজিক্যাল এডুকেশনের শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করতেন তিনি। তার হাতেই থাইল্যান্ডের জাতীয় দলের ক্রিকেটার সর্বজিৎ সিংহ এবং অস্ট্রেলিয়ান ক্লাব ক্রিকেটার পরমপ্রীত সিংহের মতো ক্রিকেটাররা উঠে এসেছেন।

Share Button