জরুরি অবস্থা জারির আদেশে সই করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। হোয়াইট হাউজের রোজ গার্ডেনে ধারণ করা এক ভিডিও ভাষণে ট্রাম্প নিজেই এ ঘোষণা দেন। মার্কিন কংগ্রেস মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের অর্থ বরাদ্দ না দেয়ায় জরুরি অবস্থা জারি করেই সে অর্থ ছাড় করার সিদ্ধান্ত নিলেন ট্রাম্প। খবর বিবিসির।

ট্রাম্প জানান, জরুরি অবস্থা জারির মাধ্যমে আগে বরাদ্দ চাওয়া ৫৭০ কোটি ডলারের বিপরীতে এবার প্রায় ৮০০ কোটি ডলার ছাড় করার সক্ষম হবেন তিনি। যদিও মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণে প্রায় ২ হাজার তিনশ’ কোটি ডলার প্রয়োজন।

ট্রাম্প বলেন, ‘জাতীয় নিরাপত্তার ইস্যু আমরা এখন দক্ষিণ সীমান্তেই মোকাবেলা করতে যাচ্ছি। মাদক, সন্ত্রাস, অনুপ্রবেশকারী সবই ঠেকানো যাবে। সবাই জানে দেয়াল নির্মাণেই কাজ হবে।’

ট্রাম্পের এমন কার্যকলাপকে ‘ক্ষমতার অপব্যবহার’ ও ‘আইনের অপব্যবহার’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন সিনিয়র ডেমোক্র্যাটরা। তারা জানান, প্রেসিডেন্ট কোনো বিলে সই করার আগে তা অবশ্যই কংগ্রেসে পাশ হতে হয়।

আরও পড়ুনঃ স্বামী-স্ত্রী দুজনেই এমপি

এর আগে এ নিয়ে হোয়াইট হাউজের প্রেস সেক্রেটারি সারাহ স্যান্ডার্স এক বিবৃতিতে বলেন, প্রেসিডেন্ট আবারও মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণ, সীমান্ত রক্ষা এবং আমাদের দেশকে সুরক্ষিত করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের জন্য কংগ্রেসের কাছে শুরুতে প্রায় ৫৭০ কোটি মার্কিন ডলার বরাদ্দ চেয়েছিলেন।

Share Button