বাংলাদেশের বিপক্ষে নিজের ঘরের মাঠে ভারতই ফেবারিট ছিল। কিন্তু সেই তকমা তারা ধরে রাখতে পারেনি। সিরিজের প্রথম ম্যাচ হেরে তিন ম্যাচের সিরিজে পিছিয়ে পড়েছে ভারত ১-০ ব্যবধানে। আগামীকাল রাজকোটে জেতার বিকল্প নেই ভারতের। সিরিজে টিকে থাকতে গেলে এই ম্যাচ তাদের জিততেই হবে। এই অবস্থায় দারুণ চাপে থাকার কথা স্বাগতিক দলের। কিন্তু দলের স্পিনার যুজুবেন্দ্র চাহাল বলছেন, তাদের ম্যানেজমেন্ট থেকে খেলোয়াড়দের ওপর এরকম কোনো চাপ নেই।

বাংলাদেশের বিপক্ষে হেরে পিছিয়ে পড়লেও সবকিছু শেষ হয়ে গেছে, এমন মনে করেন না চাহাল। তিনি বলছিলেন, এটা তিন ম্যাচের সিরিজ বলেই তারা কম চাপ টের পাচ্ছেন, ‘এটা চাপের কিছু নয়। এটা তিন ম্যাচের একটা সিরিজ। কোনো নক-আউট খেলা নয়। এক দল তো জিতবেই, এক দল হারবেই। ঐ দিন তারা জিতেছে। আমরা এখন পিছিয়ে আছি সিরিজে। কিন্তু এখনো দুই ম্যাচ আছে। অবশ্যই আমরা বিশ্বাস করি যে, আমরা খেলায় ফিরে আসব।’

চাহাল বলছিলেন, এই পরাজয়ের পরও তারা যথেষ্ট ইতিবাচক আছেন। এর আগেও তারা হেরেছেন, ফলে এই হার নিয়েই ভাবতে চান না তিনি, ‘আমি মনে করি, আমরা ইতিবাচক আছি। ব্যাপারটা এমন নয় যে, আমরা কখনো সিরিজের প্রথম ম্যাচ হারিনি। প্রথম ম্যাচ হেরেও আমরা সিরিজ জিতেছি। প্রথম ম্যাচ যা হওয়ার হয়েছে। ঐ ম্যাচ নিয়েই ভাবতে থাকলে মাথায় নেতিবাচক চিন্তা চলে আসবে।’

আরো পড়ুন: জয়ে অনন্য হয়ে থাকল টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ১০০০তম ম্যাচ

চাহাল মনে করেন, রাজকোটে তারা নতুন করে শুরু করতে পারবেন। এখানে প্রথম ম্যাচের কথা তারা আর মনে করতে চাচ্ছেন না, ‘আমরা এখানে আসার আগে ঐ পরাজয়ের কথা ভুলে গেছি। আমরা এখানে (রাজকোটে) নতুন একটা শুরু করতে চাই। আমাদের দলের ১৫ জনই মনোযোগী ও ইতিবাচক আছে। আশা করি, আগামীকাল আমরা জয় পাবো।’

চাহাল মনে করেন না যে, এ ম্যাচে পরাজয়ের ফলে দলে অনেক পরিবর্তন আসবে। আর তিনি মনে করেন, দু’একটা ম্যাচ খারাপ যেতে পারে। তাতে কোনো চাপ ম্যানেজমেন্ট থেকে তিনি দেখছেন না, ‘আমরা যে ১১ জন খেলেছি এবং দলে যে ১৫ জন খেলোয়াড় আছে, সবাই তার কাজটা জানে। এমন কিছু হবে না যে, এক ম্যাচ খারাপ করাতেই কাউকে বাদ দিয়ে দেওয়া হবে। দু’একটা ম্যাচ খারাপ যেতে পারে। কিন্তু সে জন্য ম্যানেজমেন্ট থেকে আমাদের ওপর কোনো চাপ নেই। আমাদের যেটা মনে রাখতে হবে, যে ভুল আমরা ঐ ম্যাচে করেছি, সেটা আর পুনরাবৃত্তি করা যাবে না।’

Share Button