কুষ্টিয়ায় হত্যা মামলায় লালন গাজী নামে এক ব্যক্তির ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার কুষ্টিয়া জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক অরুপ কুমার গোস্বামী এ রায় দেন। দণ্ডপ্রাপ্ত লালন গাজী কুষ্টিয়ার মিরপুর থানার চিথলিয়া গ্রামের মকবুল গাজীর ছেলে। লালন ও নিহত চিনি মোল্লা সম্পর্কে ভাইরা ভাই ছিলেন।

পুলিশ ও আদালত সূত্রে জানা গেছে, পারিবারিক দ্বন্দ্ব ও কলহের জের ধরে ২০১৭ সালের ১২ মার্চ লালন গাজীকে চিনি মোল্লা মারপিট করেন। এরপর ঘটনার দুইদিন পর ১৪ মার্চ স্থানীয় বাজারে যাওয়ার পথে চিনি মোল্লাকে লালন গাজী হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় মিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। এ ঘটনায় নিহতের বড় ভাই মিরাজুল ইসলাম মোল্লা বাদী হয়ে মিরপুর থানায় মামলা করেন। মামলার তদন্তকারী পুলিশ কর্মকর্তা ২০১৭ সালের ৩১ আগস্ট আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। সাক্ষ্য-প্রমাণে মামলাটি আদালতে প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক আসামির বিরুদ্ধে ওই দণ্ডাদেশ প্রদান করেন।

আরও পড়ুন: পাওনা টাকা চাওয়ায় দোকানিকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

রাষ্ট্রপক্ষে সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) অ্যাডভোকেট অনুপ কুমার নন্দী মামলাটি পরিচালনা করেন। আসামিপক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ।

Share Button