টাইফুন মোলাভের আঘাতে লণ্ডভণ্ড একটি এলাকা। ছবি: এএফপি

বুধবার (২৮ অক্টোবর) মধ্য ভিয়েতনামে আঘাত হানে টাইফুন মোলাভ। ধারণা করা হচ্ছে গত কয়েক দশকের মধ্যে এই অঞ্চলে আঘাত করা সবচেয়ে শক্তিশালী টাইফুন এটি। মুষলধারে বৃষ্টিপাতের ফলে শুরু হয় ভূমিধ্বস। এর ফলে নিখোঁজ হয় অনেকেই। তাদের উদ্ধারে শত শত সেনা সদস্য ও ভারী যন্ত্র মোতায়েন করেছে ভিয়েতনাম। এতে এখন পর্যন্ত নিহত হয়েছে অন্তত ২১ জন এবং নিখোঁজ ৪০ জন।

এবারের টাইফুনে সবচেয়ে ভয়াবহ ভূমিধ্বস শুরু হয় মধ্য কোয়াং প্রদেশে। সেনা সদস্যরা ২১টি মৃতদেহ উদ্ধার করলেও এ সংখ্যা আরো বাড়তে বলে আশঙ্কা করছেন তারা। উপ-প্রধানমন্ত্রী ট্রিন ডিনহ ডুং এক বিবৃতিতে বলেন, আমাদের আবহাওয়া-বিদ কেবল ঝড়ের গতিপথ ও বৃষ্টির পরিমাণ নিয়ে পূর্বাভাস দিতে পারেন। কিন্তু কখন ভূমিধ্বস হবে, তার পূর্বাভাস দেয়ার ক্ষমতা আমাদের নেই। তিনি আরো বলেন ভারি বৃষ্টিপাতে প্রতিটি রাস্তার খুব নাজুক অবস্থা এই বৈরী আবহাওয়ার মধ্যেও আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের তথ্যমতে, এখনো ৪০ জন নিখোঁজ রয়েছেন। মোলাভের তাণ্ডবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৫৬ হাজার বাড়ি এবং বিদ্যুৎ-বিহীন অবস্থায় আছে কয়েক লাখ মানুষ ।

সরকারি তথ্য বলছে, ঝড়ের চূড়ান্ত পর্যায়ে এসে খারাপ আবহাওয়ার কারণে উদ্ধার চেষ্টা ব্যাহত হচ্ছে।

ভিয়েতনামের আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, শনিবার পর্যন্ত ভিয়েতনামের মধ্যাঞ্চলে ভারি বৃষ্টি অব্যাহত থাকতে পারে এবং এ সময় সর্বোচ্চ ৭০০ মিলিমিটার পর্যন্ত বৃষ্টিপাত হতে পারে।

ভিয়েতনামের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনের তথ্যমতে, নৌকাডুবির দুদিন পর ১২ মৎস্যজীবীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এখনো সাগরে ১৪ জন নিখোঁজ রয়েছেন। তাদের খুঁজে বের করতে দুটি নৌযান মোতায়েন করা হয়েছে।

Share Button