আশজাদ রসুল সিরাজী, গাজীপুর:
লক্ষীপুরে গর্ভবতী স্ত্রী ও দুই বছরের এক কন্যাকে হত্যার দায়ে গাজীপুরে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ এ বন্দি  মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত একজনের ফাঁসি কার্যকর।
রোববার (১ নভেম্বর) রাত ১১টা ৫৫ মিনিটে গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ এ  ফাঁসি কার্যকর করা হয়েছে।
যার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হয় তিনি হলেন-  লক্ষীপুরের রামগতি থানার দক্ষিণ চরলরেন্স এলাকার মৃত শামসুল হক বাঘার ছেলে আব্দুল গফুর (৪৭)।
কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ এর জেলার মোঃ আবু সায়েম জানান, ২০০৬ সালে লক্ষীপুরের রামগতি থানার দক্ষিণ চর লরেন্স এলাকায় ৫ মাসের গর্ভবতী স্ত্রী ও দুই বছরের এক কন্যা শিশুকে হত্যা করে আব্দুল গফুর। পরে এ ঘটনায় রামগতি থানায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। এ মামলায় ২০০৮ সালে আদালত আব্দুল গফুরকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেন। এরপর আসামি পক্ষ উচ্চ আদালতে আপিল করলেও তার মৃত্যুদণ্ড বহাল থাকে। পরে রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা চেয়ে আবেদন করলেও তা খারিজ করে দেন। এক পর্যায়ে সকল আইনি প্রক্রিয়া শেষে রোববার (১ নভেম্বর) রাত ১১টা ৫৫ মিনিটে আব্দুল গফুরকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়। এ মৃত্যুদণ্ড কার্যকরে জল্লাদ ছিলেন শাহজাহান ভুইয়া।
এসময় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার ও জেলার সহ ঊর্ধ্বতন কারা কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
পরে মরদেহ নিহতের বড় ভাই মোঃ আব্দুল ও মোঃ হানিফের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
Share Button