ফাইল ছবি

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করে দুদকের দেয়া নোটিশের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ডেপুটি এটর্নি জেনারেল (ডিএজি) জান্নাতুল ফেরদৌসী রুপার রিট কার্যতালিকা থেকে বাদ দেয়া হয়েছে।

 বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি আহমেদ সোহেল সমন্বয়ে গঠিত একটি ভার্চ্যুয়াল হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ আজ সোমবার এ আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী জেড আই খান পান্না ও সুরাইয়া বেগম। দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান।

দুদক আইনজীবী খুরশীদ আলম বলেন, আদালত এ রিটটি শুনতে অপারগতা প্রকাশ করে কার্যতালিকা থেকে বাদ দিয়েছেন।

ডিএজি রুপার পক্ষে তার আইনজীবী হিসেবে সুরাইয়া বেগম গতকাল ১ নভেম্বর হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ রিট পিটিশন দাখিল করেন।

রিটে স্বরাষ্ট্র সচিব, দুদক চেয়ারম্যান, দুদকের মহাপরিচালক (বিশেষ অনুসন্ধান এবং তদন্ত-২) এবং উপরিচালককে (বিশেষ অনুসন্ধান এবং তদন্ত-২) রেসপনডেন্ট করা হয়েছে। রিটে নোটিশের কার্যকারিতা স্থগিত ও রুল জারির আর্জি পেশ করা হয়েছে।

ডিএজি জান্নাতুল ফেরদৌসী রুপাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গত ২৮ অক্টোবর নোটিশ দেয় দুদক। ওই নোটিশে আগামী ৪ নভেম্বর সকাল ১০টায় তাকে রেকর্ডপত্র-কাগজপত্রসহ দুদকের প্রধান কার্যালয়ে হাজির হতে বলা হয়েছে।

দুদক নোটিশে ডিএজি রুপার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়ম, দুর্নীতি, ক্ষমতার অপব্যবহার ও জাল জালিয়াতির মাধ্যমে ঘুষ গ্রহণপূর্বক বিতর্কিত ঠিকাদার জিকে শামীমসহ বিভিন্ন আসামির সঙ্গে আঁতাত করে জামিন করিয়ে বিপুল অর্থ হাতিয়ে নেয়াসহ জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগ বিষয়ে তার বক্তব্য জানতে চাওয়া হয়েছে।বাসস

Share Button