অমিতাভ বচ্চন। ছবি: সংগৃহীত

হিন্দুদের ভাবাবেগে আঘাতের অভিযোগে কউন বনেগা ক্রোড়পতি এবং শোয়ের সঞ্চালক অমিতাভ বচ্চনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। যা নিয়ে ইতিমধ্যেই বেশ শোরগোল শুরু হয়েছে।

 সমস্যার সূত্রপাত আসলে ‘কৌন বনেগা ক্রোড়পতি’ সিজন ১২-এর একটি পর্ব নিয়ে। যেখানে হিন্দু ভাবাবেগে আঘাত হানার অভিযোগ তুলে দর্শকমহলে বেশ উত্তেজনার সৃষ্টি হয়েছে। সম্প্রতি জনপ্রিয় ওই রিয়ালিটি শোয়ে অমিতাভ ডাঃ বিআর আম্বেদকরের একটি ধর্মগ্রন্থ পোড়ানো সংক্রান্ত প্রশ্ন করেন। আর যা মোটেই ভাল চোখে দেখেন নি হিন্দু সংগঠনের মানুষজন। আর তার জেরেই অমিতাভ বচ্চন ও ‘কৌন বনেগা ক্রোড়পতি’ নির্মাতাদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

প্রসঙ্গত, রিয়ালিটি শোয়ের সংশ্লিষ্ট এই পর্বের বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অভিনেতা অনুপ সোনি এবং সমাজকর্মী বেজওয়াড়া উইলসন। এই পর্বে ৬ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা জিতে নেওয়ার জন্য ছিল সেই প্রশ্ন। যাকে ঘিরে সূত্রপাত এত বিতর্কের। প্রশ্নটি ছিল, ১৯২৭ সালের ২৫ ডিসেম্বর ডা. বিআর আম্বেদকর ও তার অনুগামীরা কোন ধর্মগ্রন্থ পুড়িয়েছিলেন।

চারটি বিকল্পে ছিল- বিষ্ণুপুরাণ, ভগবত গীতা, ঋগ্বেদ এবং মনুস্মৃতি। উত্তর ছিল মনুস্মৃতি। প্রশ্নটির উত্তর দেওয়ার পর অমিতাভ বিআর আম্বেদকরের বিষয়ে বলতে থাকেন যে, তিনি কীভাবে জাত-ধর্মের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছিলেন। সমাজের উচ্চবর্ণের ব্যক্তিদের বিরোধিতা করেছেন। এই পর্বের পরই নেটদুনিয়ায় নিন্দার ঝড় উঠেছে। অভিযোগ, অমিতাভ বচ্চন ও কৌন বনেগা ক্রোড়পতি হিন্দু ভাবাবেগে আঘাত করেছে।

এরপরই একটি হিন্দু সংগঠনের তরফে কউন বনেগা ক্রোড়পতি এবং বিগ বি-র বিরুদ্ধে দায়ের করা হয় এফআইআর। হিন্দু ধর্মে আঘাতের অভিযোগেই লখনউতে দায়ের করা হয় অভিযোগ। ওই ঘটনার পরই ‘বয়কট কেবিসি’ বলে ট্যুইটারে ট্রেন্ড করতে শুরু করে ওই অভিযোগ।

Share Button