রোহিত শর্মা [ছবি: সংগৃহীত]

ভারতের ক্রিকেটে এখন সবচেয়ে বড় আলোচ্য রোহিত শর্মার ইনজুরি। ভারতীয় বোর্ড ও মুম্বাই দলের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে কি না, রোহিতকে নিয়ে আরো অপেক্ষা করা যেত কি না—এই আলোচনা চলছে। বিরাট কোহলির সঙ্গে রোহিতের দ্বন্দ্ব নিয়ে পুরনো গুজবের সঙ্গে নতুন সম্পর্ক জুড়ে দেওয়া হয়েছে কিছু ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে।

ভারতীয় বোর্ডের সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী পিটিআইকে বলেন, চোটের কারণেই রোহিতকে দলে রাখা হয়নি। রোহিতের করণীয় নিয়েও ইঙ্গিতে নিজেদের চাওয়া জানিয়ে দেন সৌরভ, ‘রোহিত নিজেই জানে, তার সামনে লম্বা ক্যারিয়ার পড়ে আছে। স্রেফ এই আইপিএল বা পরের সিরিজই নয়; আমি নিশ্চিত, সে জানে কোনটি তার জন্য সবচেয়ে ভালো।’

সৌরভের মন্তব্যের কয়েক ঘণ্টা পরই ম্যাচ খেলতে নেমে যান রোহিত। সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে টসের সময় ধারাভাষ্যকার মুরালি কার্তিক তাকে জিগ্যেস করেন, ‘এভরিথিং ফিট অ্যান্ড ফাইন উইথ ইউ?’ চওড়া হাসিতে রোহিতের উত্তর, ‘হ্যাঁ, সেরকমই তো মনে হচ্ছে।’

ম্যাচের পর ধারাভাষ্যকার সাইমন ডুল ফিটনেস নিয়ে জিগ্যেস করলে রোহিত বলেন, ‘মাঠে ফিরতে পেরে ভালো লাগছে। অনেক দিন বাইরে ছিলাম। এখানে আরো কিছু ম্যাচ খেলতে চাই, দেখা যাক। (হ্যামস্ট্রিং) খুব ভালো আছে, পুরোপুরি।’

রোহিতের মাঠে নামার ঘটনা উসকে দিয়েছে চলতি বিতর্ক। সাবেক ভারতীয় অধিনায়ক দিলিপ ভেংসরকার ছুড়ে দিয়েছেন প্রাসঙ্গিক প্রশ্ন, ‘প্রশ্ন হলো, ভারতের হয়ে খেলার চেয়ে আইপিএল খেলাই কি তার (রোহিত) কাছে বেশি গুরুত্বপূর্ণ? জাতীয় দলের চেয়ে ক্লাবের হয়ে খেলাই বেশি গুরুত্ব পাচ্ছে? বিসিসিআই এ ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত নেবে? নাকি বিসিসিআইয়ের ফিজিও রোহিতের চোট ঠিকভাবে পর্যালোচনা করতে ব্যর্থ হয়েছে!’

রোহিত খেলতে নামার পর ভারতীয় বোর্ডের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক কোনো মন্তব্য এখনো করা হয়নি।

Share Button