রংপুর ব্যুরো:
রংপুর-ঢাকা মহাসড়কের ব্রীজের রেলিং ভেঙ্গে ইট বোঝাই একটি ট্রাক নদীতে পড়েছে। এ ঘটনায় ট্রাকের ড্রাইভার ও হেলপার গুরুতর আহত হয়েছে, তাদেরকে গুরুতর আহত অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরবঙ্গের প্রবেশদ্বার রংপুর নগরীর মডার্ণ মোড় ব্রীজে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে আজ শনিবার (৭ নভেম্বর) রাতে বগুড়া থেকে আসা ইট ভর্তি একটি ট্রাক (ঢাকা মেট্রো-ট-১৮১৫০৭) রংপুরে প্রবেশের সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে নদীতে পড়ে যায়। এসময় ট্রাকে থাকা হেলপার ও ড্রাইভার গুরুতর আহত হয়।
খবর পেয়ে রংপুর ফায়ার সার্ভিসের  ২টি ইউনিট রংপুর থেকে সিনিয়র স্টেশন অফিসার শেখ মোঃ মাহবুবুল ইসলাম ফায়ার সার্ভিসের  কর্মী  সাথে নিয়ে  উল্টে যাওয়া কাদা ও পানির মধ্যে অর্ধেক নিমজ্জিত ট্রাকের ভেতর হতে হাইড্রলিক র‌্যামজ্যাক, পাওয়ার কাটার ও স্প্রেডার ইত্যাদি দিয়ে  উদ্ধার করে  অত্যন্ত দক্ষতা দিয়ে সাহসিকতার সাথে নিয়ে আটকা পড়া  ট্রাকে থাকা ট্রাক চালক ও হেলপারকে জীবিত জীবিত উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে । এই  উদ্ধার কার্যক্রমে অংশ গ্রহণ করেন লিডার হুমায়ুন কবির ,লিডার শাহ্ মোঃ জরজেট , ফায়ারম্যান জাকারিয়া, শাহাজাহান সিরাজ ,ফয়জার রহমান, লিটন , নাঈম সহ আরো কয়েক জন।
আহতরা হলেন- গাড়ী চালক নাটোর জেলার বড়াইগ্রাম থানার রহিম শেখের পুত্র জামির উদ্দিন জমু (৩৫), হেলপার একই এলাকার আব্দুল জলিলের পুত্র নাজিম শেখ (২২)।
এ বিষয়ে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের তাজহাট থানার কর্তব্যরত মোবাইল ডিউটি অফিসার এ.জি.এস আল-আমিন হিরা জানান- আমরা ডিউটিরত অবস্থায় খবর পাই যে নগরীর মডার্ণ মোড়ের ব্রীজের রেলীং ভেঙ্গে ইট বোঝাই একটি ট্রাক নদীতে পড়ে যায়, ফলে আমরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহত অবস্থায় ট্রাকের ড্রাইভার ও হেলপারকে উদ্ধার করি এবং চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠাই।
বর্তমানে আহত ব্যক্তিরা রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
Share Button