গলফ খেলার পর ট্রাম্প হোয়াইট হাউজে ফিরছেন। ছবি: বিবিসি

জো বাইডেনের কাছে হেরেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। কিন্তু এই হারকে তিনি কোনোভাবেই মেনে নিতে পারছেন না। যে দিন ট্রাম্পের হারের খবর ছড়িয়ে পড়লো সে দিন কেমন ছিলেন তিনি? অন্যান্য দিনের মতো সে দিন ট্রাম্পের মন মানসিকতা কেমন ছিলো? এমন প্রশ্ন এখন মানুষের মাঝে।

 হোয়াইট হাউজে বিবিসির সাংবাদদাতা টারা ম্যাককেলভি সেদিন ট্রাম্পের সঙ্গে ছিলেন। তিনিই জানিয়েছেন হারের দিন ট্রাম্পের কি অবস্থা ছিলো।

ওই সাংবাদিক বলেন, ‘গত চার বছর ধরে ট্রাম্পকে আমি দেখেছি। তার ভালো এবং খারাপ দিনগুলোতে। কিন্তু ৭ নভেম্বর, যেদিন তিনি নির্বাচনে হারলেন, সেই দিনটির সঙ্গে গত চার বছরের অন্য কোন দিনের মিল হয় না।’

‘কালো রং-এর বাতাস আটকানো জ্যাকেট, কালচে রং-এর প্যান্ট এবং ‘মেক আমেরিকা গ্রেট এগেইন’ লিখা টুপি পরে হোয়াইট হাউস থেকে সকাল ১০টায় বের হন প্রেসিডেন্ট। এরপর একটা গাঢ় রং-এর গাড়িতে উঠলেন এবং রওনা হলেন তার গলফ ক্লাবের দিকে।’

‘সেই সময় তাকে বেশ আস্থায় ভরপুর দেখাচ্ছিল। কিন্তু যারা তার কর্মচারী, তাদের মধ্যে মনে হচ্ছিল একটা অস্বস্তিরভাব রয়েছে।’

ওই সাংবাদিক বলেন, ‘সকাল সাড়ে ১১টায় প্রেসিডেন্ট যখন তার গলফ ক্লাবে অবস্থান করছেন, তখন থেকে বিবিসি এবং আমেরিকার সংবাদমাধ্যমগুলো ফলের পূর্বাভাস দিতে শুরু করল।’

‘আমরা সবাই প্রেসিডেন্টের গলফ ক্লাব থেকে বের হওয়ার জন্য অপেক্ষা করছিলাম। উনি বের হতে বেশ দেরি করছিলেন। এসময় ওই জায়গায় এক নারী উঁচু হিলের জুতা পায়ে এবং মাথায় কাপড় বাঁধা হাতে একটা সাইনবোর্ড ধরেছিলেন। সেখানে লিখা ছিলো-‘চুরি বন্ধ করো।’

সাংবাদিক বলেন, ‘শেষ পর্যন্ত ট্রাম্প ক্লাব থেকে বের হলেন এবং তার বাসভবনের দিকে যাত্রা শুরু করলেন। প্রেসিডেন্টের গাড়ির বহর ভার্জিনিয়ার রাস্তায় আওয়াজ তুলে ছুটে চলল। ওই গাড়ি বহরে ছিল আমাদের ভ্যানও।’

‘হোয়াইট হাউসের যতই কাছাকাছি যেতে লাগলাম, জনতার ঢলও ততো বাড়তে লাগল। ট্রাম্পের পরাজয়ে উৎসব করতে মানুষের ঢল নেমেছিল রাস্তায়।’

‘এরপর আমরা হোয়াইট হাউসে পৌঁছলাম। প্রেসিডেন্ট পাশের একটা দরজা দিয়ে ভেতরে ঢুকলেন। তখন তার কাঁধ ঝোঁকানো ছিলো, আর মাথা নিচু ছিল।’

বিবিসির ওই সাংবাদিক বলেন, ‘তিনি ঘাড় ঘুরিয়ে আমাদের দিকে তাকালেন। সাংবাদিকদের দেখলেন। বুড়ো আঙুল তুলে আমাদের দিকে আস্থাসূচক একটা ইঙ্গিত করলেন। তবে এটা তার স্বভাবোচিত ভঙ্গির সঙ্গে মিল ছিলো না। তিনি সাধারণত যেভাবে প্রায়ই উঁচুতে তার হাত তুলে ধরেন বা হাতের মুঠি তুলে ধরেন, সেরকম কিছু করলেন না।’

সাংবাদিক আরো বলেন, ‘নির্বাচনের পরের দিন হোয়াইট হাউসের মধ্যে একটা বিপর্যয়ের আবহাওয়া চলছে। সকালে আমি যখন হোয়াইট হাউসের ভেতর দিয়ে হাঁটছিলাম, দেখলাম ওয়েস্ট উইং অংশে বেশিরভাগ কাজের ডেস্ক খালি পড়ে রয়েছে।’

Share Button