নুসরাত ফারিয়া

পরনে লেংগিস ফিটনেস প্যান্ট আর স্পোর্টস ব্রা। মুখে মাস্ক পরে খালি পায়ে মেঝেতে দাঁড়িয়ে আছেন চিত্রনায়িকা নুসরাত ফারিয়া। একটি স্থিরচিত্রে এমন রূপেই নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে ছবিটি পোস্ট করেছেন জনপ্রিয় এই নায়িকা। ক্যাপশনে লিখেন—‘যখন দ্বিধায় থাকি…ব্যায়াম।’ গত সোমবার নুসরাত ফারিয়া ছবিটি পোস্ট করার সঙ্গে সঙ্গেই নেটিজেনদের হাজার-হাজার মন্তব্যে ছয়লাভ হয়ে যায় তার কমেন্ট বক্স। আর এসব মন্তব্যের অধিকাংশই ‘নোংরা’ ও ‘অশালীন’ ভাষায় লেখা। যদিও আজ তার কমেন্ট বক্সে অল্প কিছু কমেন্ট বাদে বাকিসব মুছে দেওয়া হয়েছে।

আবারও বিতর্কে নুসরাত ফারিয়াআঁটসাঁট পোশাক পরায় নুসরাত ফারিয়ার রুচি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন আমিনুল ইসলাম পিয়াল নামে একজন। তিনি লিখেছেন—‘কুকুরকে দেখেছেন কোনো দিন লজ্জা লাগতে? সরি, না বলে পারলাম না। কেউ কেউ আমাকে আচ্ছা ধুলায় দেবেন! হয়তো তারা পরিস্থিতির শিকার। কিন্তু রুচি থাকা দরকার।’

মুস্তাফিজুর নামে একজন লিখেছেন—‘যখন দেখি নিজের দেশের মানুষ, নিজের দেশের সেলিব্রেটিকে নিয়ে নিন্দা করে, তখন মনে মনে খুব হাসি পায়। কারণ এটাই তার পাপ্য।’

এক সময়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শাবানা-শাবনূরের উদাহরণ টেনে পারফেক্ট বয় নামে একজন লিখেছেন—‘এখনকার নাম মাত্র নায়িকারা অভিনয় দিয়ে নয়, শরীর দেখিয়ে তারকা হতে চায়। শাবানা আপা, শাবনূর আপারা কী করে ফেমাস হয়েছেন, তা দেখিয়েন।’

মুস্তাফিজুর রহমান নামে আরেকজন লিখেছেন—‘দেখ বোন, এটা ইন্ডিয়া না এটা বাংলাদেশ। আর বাংলাদেশ মুসলিম দেশ। আর তুই ভাবছিস তোকে দেখতে হেব্বি জোস লাগছে! কিন্তু মূল বিষয় হচ্ছে, তর গেটাপ, ড্রেসআপ একদম চাপরাসির মতো।’

ছবিটি ঘিরে বিতর্কের মাত্রা আরও বেড়েই চলেছে। যদিও নেটিজেনদের এমন ‘হীন’ আচরণের জন্য এখনও পর্যন্ত কোনো প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেননি নুসরাত ফারিয়া।

প্রসঙ্গত, গত মাসে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে ফরাসি পণ্য বর্জনের আহ্বান জানালে সমালোচনা জোয়ারে ভেসে যান ঢাকাই সিনেমার এই জনপ্রিয় নায়িকা নুসরাত ফারিয়া মাজহার। মালোচনার জবাব দিয়ে নুসরাত ফারিয়া পরে আরও একটি স্ট্যাটাস দেন।

সেখানে তিনি লিখেন, ‘কেন একটি সহজ বিষয়কে এতোটা জটিল করে তুলতে হবে? যদি কারো কথা আমার অনুভূতিতে আঘাত করে তবে কি সেটা জানানোর আমার অধিকার নাই? নাকি অভিনেত্রী বলে আমার কোনো মতামতই থাকতে পারে না? ‘আমার ধর্ম আমার বিশ্বাস এবং আমার সহ্যসীমার বাইরে চলে যায় এমন কিছু নিয়ে কথা বলার ২০০ ভাগ অধিকার আমার আছে।’

Share Button