রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান ও ডোনাল্ড ট্রাম্প। ফাইল ছবি

তুরস্কের সঙ্গে ‘আন্তরিক এবং সৌহার্দ্যপূর্ণ’ সম্পর্ক রাখায় ডোনাল্ড ট্রাম্পকে আবেগঘন বিদায়বার্তা জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান জানান, বাইডেনের কাছে নির্বাচনে হেরে যাওয়ায় আমেরিকার সাংবিধানিকভাবে প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব ছেড়ে দিতে হচ্ছে ট্রাম্পকে।

 প্রায় ছয় দশক ধরেই তুরস্ক ও যুক্তরাষ্ট্র পরস্পরের মিত্র হিসেবে পরিচিতি। যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ন্যাটোর প্রথম সারির সদস্যরাষ্ট্র তুরস্ক। ন্যাটোভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের পর দ্বিতীয় বৃহত্তম সামরিক বাহিনী রয়ছে তুরস্কের। এর বাইরেও দুই দেশের সম্পর্কের রয়েছে নানা সমীকরণ। ওয়াশিংটন ও আঙ্কারার মধ্যে সম্পর্কের টানাপড়েনও চলছে ডোনাল্ড ট্রাম্পের ক্ষমতাকালে।

গত চার বছরে আঙ্কারার প্রতি ‘বন্ধুত্বপূর্ণ দৃষ্টিভঙ্গি’ রাখায় বিদায়ী ট্রাম্প প্রশাসনের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান এরদোয়ান। তিনি বলেন, ট্রাম্পের শাসনামলে দু’দেশের সম্পর্ক অনন্য উচ্চতায় পৌঁছেছে। তবে পরাজয় প্রসঙ্গে এরদোয়ান এক বিবৃতিতে বলেন, দ্বিতীয় মেয়াদে ট্রাম্প ক্ষমতায় থাকতে পারবেন বলে ধারণা ছিল আঙ্কারার। এর আগে যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের ঐতিহাসিক সম্পর্ক ধরে রাখতে আঙ্কারা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ বলেও জানান তুর্কি প্রেসিডেন্ট। সবশেষ বিবৃতিতে ট্রাম্পকে আবারো ধন্যবাদ জানিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের জনগণের শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করেন এরদোয়ান।

Share Button