আশজাদ রসুল সিরাজী, গাজীপুর প্রতিনিধি :
রাজধানীর আদাবরে মাইন্ড এইড হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে গিয়ে নিহত পুশিলের সিনিয়র সহকারী সুপার আনিসুল করিম শিপনের পরিবারের সদস্যদের সাথে সাক্ষাত করে সমবেদনা জানিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ ও গাজীপুর জেলা পুলিশের কর্মকর্তারা। নিহতের বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা ফাইজুদ্দিন আহমেদ সন্তান হত্যার সুষ্ঠু তদন্ত ও অপরাধীদের শাস্তির দাবীতে প্রধানমন্ত্রী ও আইজিপি’র হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
বুধবার সকালে নিহত আনিসুলের গাজীপুর শহরের বরুদার বাসায় যান ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) এর তেজগাঁও জোনের উপ পুলিশ কমিশনার (ডিসি) মো: হারুন অর রশিদ, গাজীপুর মহানগরের উপ পুলিশ কমিশনার (ডিসি ক্রাইম) শরিফুল ইসলাম, জেলা পুলিশ সুপার শামসুন্নাহারসহ অন্যান্য কর্মকর্তাগণ। এসময় স্বজনদের আহাজারিতে হৃদয়বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়। নিহতের ব্যাচমেট ৩১তম বিসিএস পুলিশের একাধিক সহকর্মীসহ কাপাসিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আমানত হোসেন খান ও গাজীপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট রীনা পারভীন উপস্থিত ছিলেন। পরে তারা গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের কেন্দ্রীয় কবরস্থানে নিহতের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও জিয়ারত করেন।
অপরদিকে বুধবার সকালে নিহত শিপনের সহপাঠি জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ স্থানীয় স্কুল ও কলেজের সহপাঠি এবং এলাকাবাসির উদ্যোগে হত্যাকারীদের বিচার দাবিতে শহরের রাজবাড়ি সড়কে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করে। কাউন্সিলর হাসান আজমল ভূইয়া, আয়েশা বেগমসহ আওয়ামী লীগ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ এতে অংশ নেন। এসময় বক্তারা অবিলম্বে শিপন হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিতে প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। মানববন্ধনে উপস্থিত সকলকে ডিএমপি’র উপ পুলিশ কমিশনার হারুন অর রশিদ হত্যার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচারের আশ্বাস দেন।
Share Button