প্রতিকী ছবি

রাশিয়ায় তৈরি করোনা ভ্যাক্সিন স্পুটনিক ভি করোনাভাইরাস সংক্রমণের হার কমাতে ৯২% কার্যকরী বলে দাবি করল মস্কো। জানা গেছে, অভ্যন্তরীণ ট্রায়ালের ভিত্তিতে এই রিপোর্ট পাওয়া যায়।

 ভ্যাকসিনটির পরবর্তী তথ্য প্রকাশের সম্ভাবনা রয়েছে নভেম্বরের শেষে বা ডিসেম্বরে। অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় এবং ব্রিটেন ভিত্তিক অ্যাস্ট্রাজেনেকা পিএলসি এজেডএন.এল থেকে বাকি তথ্য জানানো হবে।

গত অগস্ট মাসে আনুষ্ঠানিক ভাবে স্পুটনিক ভি ভ্যাকসিনের উদ্বোধন করেছিল রাশিয়া। তবে সেপ্টেম্বর মাসে ব্যাপক হারে ট্রায়াল শুরুর আগেই এই ঘোষণা করায় মস্কোর দাবির সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিল পুরো বিশ্ব।

সংস্থাটি তাদের স্পুটনিক ভি ভ্যাকসিনটি একটি প্লেসবো-স্যালাইন সলিউশনের মাধ্যমে তাদের করোনা আক্রান্ত স্বেচ্ছাসেবীদের ওপর প্রয়োগ করে আশানুরূপ ফল পান।

অভ্যন্তরীণ ট্রায়ালে অংশগ্রহণকারী যে প্রথম ১৬,০০০ স্বেচ্ছাসেবীর শরীরে দু’বার টিকা দেওয়া হয়েছে, তাঁদের নমুনার ভিত্তিতেই এই ফল পাওয়া গিয়েছে বলে দাবি করেছে আন্তর্জাতিক বাজারে ভ্যাক্সিন বিপণনকারী রাশিয়ান ডাইরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড (আরডিআইএফ)।

আরডিআইএফ-এর দাবি, যাঁদের স্পুটনিক ভি টিকা দেওয়া হয়েছে, তাঁদের কোভিড সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা ৯২% কম। অর্থাৎ আমেরিকা নির্দিষ্ট মাপকাঠির চেয়ে সাফল্যের নিরিখে প্রায় ৫০% এগিয়ে রয়েছে রাশিয়ার এই টিকা।

এছাড়াও মার্কিন ওষুধ প্রস্তুকারক কোম্পানি ফাইজার ও জার্মান জৈবপ্রযুক্তি কোম্পানি বায়োএনটেক। তারা বলছে, ভ্যাকসিনটি ৯০ শতাংশ কার্যকর। এই তথ্য বেশ আশাব্যঞ্জক বলে মন্তব্য করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। তবে এ বিষয়ে সবাইকে সতর্ক অবস্থানে থাকার পরামর্শ দিয়েছে জাতিসংঘের এই অংগসংগঠনটি।

Share Button