আশজাদ রসুল সিরাজী:
নতুন চালের তৈরি পিঠা-পায়েস বিতরণ, মাঠে ফসল কাটাসহ বিভিন্ন আনুষ্ঠানিকতার মাধ্যমে নবান্ন উৎসব উদযাপন করা হয়। ব্রির মহাপরিচালক ড. মো. শাহজাহান কবীর, পরিচালক (গবেষণা) ড. কৃষ্ণ পদ হালদার, পরিচালক (প্রশাসন) ড. মো. আবু বকর ছিদ্দিক এবং বিভিন্ন গবেষণা বিভাগ ও শাখা প্রধানগণ এসব আনুষ্ঠানিকতায় নেতৃত্ব দেন। উর্ধ্বতন বিজ্ঞানী, কর্মকর্তা-কর্মচারী ও শ্রমিকসহ শত শত মানুষ স্বত:স্ফূর্তভাবে এতে অংশ নেন।
এ উপলক্ষ্যে প্রদত্ত বক্তৃতায় ড. মো. শাহজাহান কবীর বলেন, নবান্ন উৎসবের মতো আনুষ্ঠানিকতার মাধ্যমে আমাদের জীবনে সংস্কৃতি র্চচার ঐতিহ্যকে আরো প্রাণোচ্ছল ও বেগবান করতে পারি। আমাদের তরুণ সমাজকে বিপথে চালিত হওয়া থেকে রক্ষা করার জন্য এটি আরো বেশি প্রয়োজন। এই আনুষ্টানিকতার  মাধ্যমে অগহায়ণ মাসের প্রথম দিনটিকে আমরা জাতীয় কৃষি দিবস হিসেবে উৎসাহ উদ্দীপনার সঙ্গে পালন করতে পারি। এ সময়টাতে দেশের প্রধান ফসল ধান কাটার বর্ণাঢ্য আনুষ্টানিকতার শুভ সূচনা হয়। এভাবে আমরা আমাদের শেখড়ের সঙ্গে  নতুন করে সংযোগ স্থাপনের চেষ্টা করি। এই আনুষ্ঠানিকতার পাশাপাশি আমাদের মেহনতী কৃষক ভাইয়েরা যাতে তাদের উৎপাদিত ফসলের ন্যায্য মূল্য পান সেজন্যও আমাদের যার যার অবস্থান থেকে চেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে।
Share Button