ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) খেলতে কোনো দেশের ক্রিকেট বোর্ডের উচিত নয় তাদের ক্রিকেটারকে ছাড়পত্র দেয়া। এমন মন্তব্যই করেছেন অস্ট্রেলিয়ান কিংবদন্তি ক্রিকেটার অ্যালান বর্ডার।
এ বছর বিশ্বকাপ না হওয়ায় ক্রিকেট খেলুড়ে সব দেশ আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছে। আর আইপিএল না হলে বিসিসিআই প্রায় ৪ হাজার কোটি টাকার ক্ষতির  মুখে পড়ত। সেই ক্ষতি এড়াতেই বিশ্বকাপের চেয়ে আইপিএল আয়োজনে বেশি উদগ্রীব ছিল বিসিসিআই।

করোনার অজুহাত দেখিয়ে নভেম্বর-ডিসেম্বরে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিত হয়। বিশ্বকাপ স্থগিত হওয়ার পরই ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই) আইপিএলের সূচি চূড়ান্ত করে। তখন ক্রিকেট বিশ্লেষকদের অনেকেই বলেছেন ভারতের কারণেই বিশ্বকাপ স্থগিত করা হয়েছে।

আইপিএলের ১৩তম আসর শেষ হওয়ার পর সেই একই কথা বলেছেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক অ্যালান বর্ডার।
এবিসিকে তিনি  বলেছেন, আইপিএলের চেয়ে বিশ্বকাপ খেলাকে প্রাধান্য দেয়া উচিত ছিল। করোনায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ যদি করা না যায়, তাহলে আইপিএলও হওয়া উচিত নয়। আর্থিক কারণেই আইপিএল আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে আমি একেবারেই খুশি নই। এমন হলে ক্রিকেট খেলুড়ে দেশগুলোর উচিত তাদের ক্রিকেটারকে আইপিএলে না পাঠানো।

Share Button