প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি : সংগৃহীত

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নির্মাণ প্রকল্প দেরি হওয়ার একটি বড় কারণ হলো একই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান অনেকগুলো কাজ একসাথে করে থাকে। তাই একটি প্রকল্পে কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত আরেকটি প্রকল্পের কাজ একই প্রতিষ্ঠানকে না দেওয়ার নির্দেশনা দেন তিনি।

মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকে এ নির্দেশনা দেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, কিছু মুষ্টিমেও প্রতিষ্ঠান সরকারি নির্মাণ কাজ করছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে কে কতগুলো কাজ পেয়েছে, কাজ সময়মতো শেষ করেছে কি না, কোন সময় শেষ করেছে, এসবের একটি তালিকা সব মন্ত্রণালয় তৈরি করবে এবং তা প্রকাশ করতে হবে। কিছু মুষ্টিমেও প্রতিষ্ঠানের হাতে যেনো প্রকল্পের কাজ না থাকে।

প্রধানমন্ত্রী এবং একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে গণভবনের সাথে সংযুক্ত হয়ে ভিডিও কনফারেন্সিং-এর মাধ্যমে শেরেবাংলা নগরস্থ এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে পরিকল্পনা বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব মো. আসাদুল ইসলাম প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসনগুলো সাংবাদিকদের অবহিত করেন।

তিনি বলেন, কভিড-১৯ পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, করোনা ভ্যাকসিন প্রয়োগ করতে আমাদের ভালো ব্যবস্থা নিতে হবে। শুধু ভ্যাকসিন আমদানি নয়, এর সরবরাহ, বিতরণসহ সব পর্যায়ে গুরুত্ব দিতে হবে। কারণ আমাদের বেশি সংখ্যক মানুষকে ভ্যাকসিন দিতে হবে। ভ্যাকসিন দিতে যথাযথ প্রশিক্ষণ নেওয়ার কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। সেইসাথে এই ভ্যাক্সিন দেওয়ার পর যে বর্জ্য থাকবে সেগুলোকে যথাযথ ব্যবস্থাও নিতে হবে।

Share Button