মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য ‍দিচ্ছেন পানি সম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম।

পানি সম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম এমপি বলেছেন, বিএনপি’র এখন প্রধান কাজই হচ্ছে দেশের জনগণকে ধোঁকা দেয়া। তারা ক্ষমতায় থাকতে জনগণকে ধোঁকা দিয়ে দেশের টাকা বিদেশে পাচার করেছে; তারা এতিমের টাকা মেরে খেয়েছে। তারা ক্ষমতায় আসতে না পেরে আগুন সন্ত্রাস করে দেশের মানুষকে পেট্রোল বোমা মেরে হত্যা করেছে। দেশ-বিদেশে নানা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। তবে এদেশের জনগণ আর ধোঁকাবাজ বিএনপি’র ফাঁদে আর পা দেবে না। কারণ, বিএনপি ধোঁকাবাজ দল হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে। নামসর্বস্ব দলে পরিণত হতে হয়ে তারা এসি রুমে বসে শব্দ বোমা মারছে। তাদের কার্যক্রম ফেসবুক আর ফটোসেশনেই সীমাবদ্ধ। বিএনপি এদেশের জন্য একটি বিষফোঁড়ায় পরিণত হয়েছে। বিএনপির আর ক্ষমতায় আসার সুযোগ নাই। উন্নয়ন-অগ্রগতির জন্য বারবার এদেশের জনগণ বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকেই ক্ষমতায় দেখতে চায়।

মঙ্গলবার সকালে শরীয়তপুরের নরসিংহপুর ফেরিঘাটে ১ হাজার ২৫৭ কোটি টাকা ব্যয়ে শরীয়তপুর-ইব্রাহিমপুর আঞ্চলিক মহাসড়কের কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন শেষে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

চরসেনসাস ইউপি চেয়ারম্যান ও সখিপুর থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জিতু মিয়া বেপারীর সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন, চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক মাজেদুর রহমান খান, শরীয়তপুরের জেলা প্রশাসক পারভেজ হাসান, পুলিশ সুপার এস.এম আশ্রাফুজ্জামান, সড়ক ও জনপদের নির্বাহী প্রকৌশলী ভূঁইয়া রেদওয়ানুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, ভেদরগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব হুমায়ুন কবির মোল্যা, ইউএনও তানভীর আল নাসীফ, নড়িয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাসানুজ্জামান খোকন, সখিপুর থানার সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান মানিক সরকার, সহ-সভাপতি আনোয়ার হোসেন বালা। বক্তব্য রাখেন, চরসেনসাস ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম বালা, আওয়ামী লীগের সভাপতি ওয়াদুদ বালা, সখিপুর থানার সাংগঠনিক সম্পাদক মাকসুদ বালা, ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মফিজুল ইসলাম মাদবর।

এনামুল হক শামীম আরও বলেন,বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আছেন বলেই দেশে বড় বড় মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন হচ্ছে, দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় সরকারের এই মেয়াদেই শরীয়তপুর-চাঁদপুর তথা দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চলের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নের জন্য মেঘনা নদীতে ট্যানেলের কাজের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন করা হবে। আর সারাদেশে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকাকে নদী ভাঙনের হাত থেকে রক্ষায় স্থায়ী প্রকল্প গ্রহণ করা হবে।

এর আগে সকালে চাঁদপুর শহর রক্ষা প্রকল্পের কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করেন উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম।

Share Button