রংপুর ব্যুরো:

রংপুর মহানগরীর কুকরুল পশ্চিম পাড়া এলাকায় বুধবার পৈত্রিক জমি দাবি করায় চাচার হাতে ভাতিজা জখম হওয়ার ঘটনার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসি।

আজ ২৫ নভেম্বর দুপুরের নগরীর কুকরুল বাজারে এলাকার কয়েকশ নারীপুরুষ একত্রিত হয়ে মানববন্ধন ও সমাবেশ করে। এতে বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির ৪ নং ওয়ার্ড সভাপতি হানিফুর রহমান হানিফ, ব্যাংক কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম, আহত ভাতিজা বেলাল হোসেন, তার স্ত্রী খাদিজা বেগম, ভাগনি সুমি প্রমুখ।

এসময় বক্তারা বলেন, পশ্চিমপাড়া এলাকার বেলাল হোসেন তার পিতার মৃত্যুর পর চাচা রমজান আলীর দখলে থাকা জমিজমার ভাগ দাবি করলে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে চাচা। ভাতিজা বেলালকে মেরে ফেলে জমি আত্মসাত করার জন্যই সোমবার তাকে ধরে নিয়ে এসে রশি দিয়ে বেঁধে মারপিট ও জখম করে। এ ঘটনায় মামলা হলেও চাচা রমজান আলী ও তার সঙ্গীরা জামিন নিয়ে এসে আবারও তাকে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে। এখন তারা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। এজন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ দাবি করেন তারা।

 

রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের পরশুরাম থানার ওসি তদন্ত আবু মুসা জানান, জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে সোমবার রাতে ওই এলাকার রাস্তা থেকে ভাতিজা বেলাল হোসেনকে ধরে নিয়ে যায় চাচা রমজান আলী ও তার সহযোগীরা। বাড়িতে নিয়ে গিয়ে তাকে গলায় রশি পেঁচিয়ে বেদম মারপিট ও জখম করা হয়। মুমূর্ষ অবস্থায় খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করায়। এ ঘটনায় ঘটনাস্থল থেকে বেলালকে মারপিটকারী চাচা রমজান আলী, চাচী রনজনা বেগম এবং কন্যার রোকসানাকে গ্রেফতার করে।

Share Button