চিকিৎসা নিয়ে বাসায় ফিরেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। অবস্থার উন্নতি হওয়ায় মঙ্গলবার তাকে ছাড়পত্র দেন চিকিৎসকরা। বেলা সাড়ে ১১টায় তিনি ল্যাবএইড হাসপাতাল ছাড়েন। তিনি বর্তমানে রাজধানীর আদাবরের বাসায় অবস্থান করছেন।

বিষয়টি যুগান্তরকে নিশ্চিত করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির। তিনি যুগান্তরকে বলেন, হার্টে রিং পরানোর পর এখন সুস্থ আছেন রুহুল কবির রিজভী। তিনি কিছু সময় বিশ্রামে থাকবেন। দেশবাসীর কাছে সুস্থতা কামনায় দোয়া চেয়েছেন।

 

রিজভীর সহকারী আরিফুর রহমান তুষার জানান, রিজভী মঙ্গলবার বেলা ১১টায় হাসপাতাল ছেড়েছেন। সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। বিশেষ করে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের প্রতি তিনি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। এ ছাড়া অসুস্থ হওয়ার পর থেকে দলীয় নেতাকর্মী ছাড়াও যারা দেশ-বিদেশ থেকে খোঁজখবর নিয়েছেন, সুস্থতার জন্য দোয়া করেছেন তাদের ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন রিজভী।

গত শনিবার সকালে ল্যাবএইড হাসপাতালে রুহুল কবির রিজভীর হার্টে রিং পরানো হয়।

১৩ অক্টোবর প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন শেষে তার হার্টঅ্যাটাক হয়। প্রথমে তাকে ধানমণ্ডির ল্যাবএইড হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। ১১ নভেম্বর বিএসএমএমইউতে তার হার্টের এমপিআই টেস্ট করা হয়। এমপিআই পরীক্ষায় কিছু সমস্যা ধরা পড়ে। তাই শনিবার আবারও তার এনজিওগ্রাম করে সমস্যা ধরা পড়ায় তার হার্টে রিং পরানো হয়।

 

 

Share Button