যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত সাত আসামি

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে ক্যাবল টিভি (ডিস) ব্যবসায়ী মুকুলকে হত্যার দায়ে সাত জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে তাদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (৩০ নভেম্বর) দুপুরের দিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. রবিউল ইসলাম এ রায় দেন। এ সময় আদালতে ৬ আসামি উপস্থিতি ছিলেন।দণ্ডপ্রাপ্ত সাতজন হলেন- শিবগঞ্জের মোবারকপুর ইউনিয়নের গঙ্গারামপুর গ্রামের আফতাব আলীর ছেলে ডলার (৩০) , সুইট (২৫), একই গ্রামের সেতাউর রহমানের ছেলে আলাউদ্দিন (৫০), বক্কার আলী (৪৮), লাল মোহাম্মদ (৪৬), ইসরাইল (৪০) ও আয়েশ মুন্নার ছেলে বাহার আলী (৩৫)। এদের মধ্যে সুইট পলাতক রয়েছেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার মোবারকপুর ইউনিয়নের গঙ্গারামপুর গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে মুকুল ক্যাবল টিভির (ডিস) ব্যবসা করতেন। গত ২০১৫ সালের ০৯ জানুয়ারি রাত ৭টার দিকে মুকুল নিজ বাড়ি থেকে কানসাটের পুকুরিয়া যাচ্ছিলেন। পথে কানসাটের বিএন বাজার এলাকায় প্রতিপক্ষ সুইটের নেতৃত্বে বেশ কয়েকজন হাসুয়াসহ ধারালো অস্ত্র দিয়ে মুকুলকে কুপিয়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু নিশ্চিত করে। সে সময় মুকুলের সঙ্গে থাকা অপর সাত-আটজন গুরুত্বর আহত হলে তাদের রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মুকুলের পরিবারের সঙ্গে প্রতিপক্ষ সুইটদের জায়গা-জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। এ ঘটনায় মুকুলের বাবা রবিউল ইসলাম বাদী হয়ে ২০১৫ সালের ১২ জানুয়ারি শিবগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ২০১৫ সালের ১১ আগস্ট ২০ জনের নামে আদালতে চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দাখিল করেন। দীর্ঘ সাক্ষ্য ও শুনানির পর অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় সোমবার সাত জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় মামলার অন্য ১৩ জনকে বেকসুর খালাস দেন বিচারক।

Share Button