হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী স্মৃতি পরিষদ আয়োজিত স্মরণসভায় অতিথিরা।

জাতীয় পার্টি-জেপি প্রেসিডিয়াম সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সাদেক সিদ্দিকী বলেছেন, দেশ পরিচালনায় হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী অবিস্মরণীয় ভূমিকা রেখেছেন। তার মতো নেতার বর্তমানে আমাদের দেশে খুব প্রয়োজন হয়ে পড়েছে। হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী সাধারণ মেহনতি মানুষের অধিকার ও গণতান্ত্রিক অধিকার আদায়ের জন্য নিজেকে উৎসর্গ করে গেছেন।

শনিবার মরহুমের সমাধি প্রাঙ্গণে হোসেন শহীদ সোহরনাওয়ার্দীর ৫৭তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী স্মৃতি পরিষদ আয়োজিত স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, শহীদ সোহরাওয়ার্দী শুধু গণতন্ত্রকামীই ছিলেন না, মানবকল্যাণে ছিলেন নিবেদিত প্রাণ। একজন শিক্ষিত মানুষ যখন শ্রমিকদের অধিকার-সচেতন করে গণতন্ত্রের দীক্ষা দেন তখন বুঝতে হবে তার রাজনীতির সাথে মানবতার আদর্শ অবিচ্ছিন্ন।

স্মৃতি সংসদের সভাপতি ইতিহাসবিদ সিরাজউদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগ সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা এম এ জলিল, আওয়ামী লীগ নেতা এম এ করিম, বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুঁইয়া, আওয়ামী যুব লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য মানিক লাল ঘোষ, বাংলাদেশ জাসদ নেতা হুমায়ূন কবির, মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগের সাধারণ সম্পাদক আকবর হোসেন পাঠান, বরিশাল বিভাগ সমিতির যুগ্ম সম্পাদক আ স ম মোস্তফা কামাল প্রমুখ।

এম এ জলিল বলেন, বিপন্ন গণতন্ত্রের সুস্থ ও সুষ্ঠু জাগরণ আর প্রগতির গতি নিরবচ্ছিন্ন করার জন্য এমন মানুষ ছিলেন হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী। রাজনীতির সঙ্গীন অবস্থায় তার আদর্শ প্রচার অত্যন্ত জরুরি।

বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুঁইয়া বলেন, আমাদের শেরে বাংলা, মওলানা ভাসানী, শহীদ সোহরাওয়ার্দীর মতো মানুষের আদর্শ লালন করে সামনে এগিয়ে যেতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে ইতিহাসবিদ সিরাজউদ্দিন আহমেদ বলেন, জাতীয় ইতিহাসের বিভিন্ন স্তরে, বিভিন্ন সময়ে মানব সমাজ আর রাষ্ট্রের প্রয়োজনে বিভিন্ন প্রতিভার জন্ম হয়। হোসেন শহীদ সোরাওয়ার্দীর আবির্ভাবও এমন একটি ঐতিহাসিক পটভূমিতে সমাজ আর রাষ্ট্রের প্রয়োজনে।

Share Button