[ছবিঃ সংগৃহীত]

মরণঘাতী করোনার ধাক্কা কাটিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে ক্রিকেট মাঠে গড়িয়েছে। কিন্তু ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকা সেই খেলার স্বাদ গ্রহণ করতে পারছে না। দুই দলের খেলোয়াড়ই প্রাণঘাতী ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছে। এর ফলে প্রথম ওয়ানডের মত আজ সোমবার (৭ ডিসেম্বর) দ্বিতীয় ওয়ানডেও পেছানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ড।

জানা যায়, ইংল্যান্ড শিবিরে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন দু’জন। দ্বিতীয় দফায় তাদের টেস্ট এখনো করা হয়নি। এই অবস্থায় সিরিজ নিয়ে অনিশ্চয়তা বাড়লেও পরিস্থিতি কোন দিকে মোড় নেয় সেদিকে চেয়ে আ /ছে দুই দেশের বোর্ড। টানা দুই ম্যাচ পিছিয়ে যাওয়ায় সৃষ্টি হয়েছে এক জটিলতার। দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট বোর্ড ভেবেছিল বাকি দুই ওয়ানডে মঙ্গলবার ও বুধবার টানা খেলানোর কথা।

কিন্তু পরিস্থিতি বলছে ভিন্ন কথা। ইংল্যান্ডের খেলোয়াড়রা এখন আইসোলেশনে আছেন। ওই দুজনের যদি টেস্টে ফের করোনা পজিটিভ আসে তাহলে ১০ দিনের হোটেল কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে খেলোয়াড়দের।

গত শুক্রবার শুরু হওয়ার কথা ছিল ওয়ানডে সিরিজ। কিন্তু স্বাগতিকদের স্কোয়াডের একজন করোনা পজিটিভ হওয়ায় প্রথম ম্যাচ দুই দিন পিছিয়ে করা হয় গত রবিবার। কিন্তু ম্যাচ শুরুর আগে দুই হোটেল কর্মী করোনা পজিটিভ হওয়ায় মাঠে যাওয়ার আগেই পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়েছে ম্যাচটি। কারণ ওই হোটেলেই অবস্থান করছিলেন ‍দুই দলের খেলোয়াড়রা!

Share Button