প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রধান অতিথি হিসেবে ভিডিও টেলি কনফারেন্সের মাধ্যমে উপস্থিত থেকে কুচকাওয়াজ পরিদর্শন করছেন। ছবি : আইএসপিআর

বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর ৭৭তম বাফা কোর্স ও ডিরেক্ট এন্ট্রি ২০২০ কোর্স এর কমিশন প্রাপ্তি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি কুচকাওয়াজ রবিবার যশোরে অবস্থিত বিমান বাহিনী একাডেমি প্যারেড গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত হয়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রধান অতিথি হিসেবে ভিডিও টেলি কনফারেন্সের মাধ্যমে উপস্থিত থেকে কুচকাওয়াজ পরিদর্শন ও অভিবাদন গ্রহণ করেন এবং প্রধান অতিথির পক্ষে বাংলাদেশ বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত, বিবিপি, ওএসপি, এনডিইউ, পিএসসি ক্যাডেটদের মাঝে পদক, সনদপত্র এবং ফ্লাইং ব্যাজ বিতরণ করেন।

অফিসার ক্যাডেট শাকিল আহমেদ ৭৭তম বাফা কোর্সে সেরা চৌকস কৃতিত্বের জন্য ‘সোর্ড অব অনার’এবং অফিসার ক্যাডেট সাইফ আল সাফাত উড্ডয়ন প্রশিক্ষণে সেরা কৃতিত্বের জন্য ‘বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমান ট্রফি’লাভ করেন। ৭৭তম বাফা কোর্স (গ্রাউন্ড ব্রা ) এ সেরা কৃতিত্বের জন্য অফিসার ক্যাডেট শাশ্বত সরকার দীপ ‘বিমান বাহিনী প্রধানের ট্রফি’ লাভ করেন। অফিসার ক্যাডেট মেহেদী হাসান তুষার জেনারেল সার্ভিস প্রশিক্ষণ কৃতিত্বের জন্য ‘কমান্ড্যান্টস্ ট্রফি’লাভ করেন। ২ নং স্কোয়াড্রন চ্যাম্পিয়ন বিবেচিত হয়ে একাডেমি পতাকা লাভ করে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণে বলেন, করোনা মহামারী মোকাবেলায় বিমান বাহিনীর উদ্ভাবনী ক্ষমতা ও নিয়মতান্ত্রিক ব্যবস্থাসমূহ অনুসরণীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। শুধু তাই নয়, চিকিৎসা ও মানবিক সাহায্যসহ বিমান বাহিনী বাংলাদেশ সরকারের বন্ধুত্বের বার্তা পৌঁছে দিয়েছে মালদ্বীপ, লেবাননসহ বিভিন্ন দেশে। এছাড়া, ঘূর্ণিঝড় আম্ফান পরবর্তী দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর প্রশংসনীয় ভূমিকার জন্য তিনি এ বাহিনীর প্রতিটি সদস্যকে সাধুবাদ জানান। অন্যদিকে বিমান বাহিনীর হাত ধরে বন বিভাগের সহায়তায় দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় উন্নতমানের গাছের বীজ বপনের মাধ্যমে যে সবুজ বিপ্লব সূচিত হতে যাচ্ছে তা দেশের প্রাকৃতিক পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় অনন্য ভূমিকা রাখবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

তিনি আরও বলেন, কিছুদিন আগেই মহিলা বিমানসেনার প্রথম দলটি তাদের প্রশিক্ষণ সমাপ্ত করে নিজ নিজ কর্মজীবন শুরু করেছে যা নারীর ক্ষমতায়ন, সামাজিক মর্যাদা ও সর্বোপরি জাতি গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। সবশেষে প্রধানমন্ত্রী সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কথা গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন এবং বিমান বাহিনীর উন্নয়নে তার অবদানের কথা কৃতজ্ঞতার সাথে উল্লেখ করেন।

এবারে ২০ জন মহিলা অফিসার ক্যাডেটসহ মোট ৬৭ জন অফিসার ক্যাডেট কমিশন লাভ করেন। অফিসার ক্যাডেট একাডেমি আন্ডার অফিসার মো. নাজমুল ইসলাম দীপন আনুষ্ঠানিক কুচকাওয়াজের নেতৃত্ব প্রদান করেন। কুচকাওয়াজ শেষে বিমান বাহিনী একাডেমির বিভিন্ন প্রকার বিমানের আকর্ষণীয় ফ্লাইপাস্ট অনুষ্ঠিত হয়।

অন্যান্যের মধ্যে, উচ্চ পদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তাবৃন্দ, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এবং সদ্য কমিশনপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের অভিভাবকবৃন্দ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী ভিডিও টেলি কনফারেন্স এর মাধ্যমে যুক্ত হলে বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত, বিবিপি, ওএসপি, এনডিইউ, পিএসসি এবং বিমান বাহিনী একাডেমি এর কমান্ড্যান্ট এয়ার কমডোর মো. মোস্তাফা মাহমুদ সিদ্দিক, জিইউপি, এএফডব্লিউসি, এসিএসসি, পিএসসি তাকে স্বাগত জানান। আইএসপিআর

Share Button