বিদেশে অনলাইনে পণ্য বিক্রি সহজ হলো

দেশের ই-কমার্স প্রাতিষ্ঠানগুলোর কাছ থেকে বিদেশি ক্রেতারা কোনো পণ্য কেনার সময় ক্যাশ অন ডেলিভারিতে মূল্য পরিশোধ করতে পারবে। দেশের ই-কমার্স ওয়েব সাইটের মাধ্যমে বিদেশি ক্রেতাদের কাছে পণ্য বিক্রির পদ্ধতি সহজ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এখন থেকে দেশের ই-কমার্স প্রাতিষ্ঠানগুলোর কাছ থেকে বিদেশি ক্রেতারা কোনো পণ্য কেনার জন্য ক্রয়াদেশ (অর্ডার) দিলে ভোক্তা পর্যায়ে (বিজনেস-টু-কনজিউমার) পণ্য সরবরাহের পর মূল্য পরিশোধ করতে পারবে। এ ধরনের সরবরাহ ক্যাশ অন ডেলিভারি হিসেবে পরিচিত।

এ ছাড়া জাহাজীকরণের পর মূল্য পরিশোধের (পেমেন্ট অন শিপমেন্ট) শর্তেও বিদেশি ক্রেতাদের কাছে পণ্য রপ্তানি করতে পারবে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলো। গত সোমবার এ ধরনের লেনদেনের অনুমোদন দিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রানীতি বিভাগ থেকে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে ব্যাংকগুলোকে পাঠানো হয়। এত দিন পণ্য সরবরাহের আগেই রপ্তানি মূল্য পরিশোধ সাপেক্ষে ই-কমার্সের আওতায় রপ্তানি কার্যক্রম পরিচালিত হতো।

নতুন জারি করা প্রজ্ঞাপনে আন্তর্জাতিক কার্ডের পাশাপাশি অনলাইন পেমেন্ট গেটওয়ে সার্ভিস প্রোভাইডার, ডিজিটাল ওয়ালেট বা যথাযথ কর্তৃপক্ষ অনুমোদিত যে কোনো পেমেন্ট ব্যবস্থায় ই-কমার্সভিত্তিক লেনদেন সম্পাদন করা যাবে বলে জানানো হয়। নতুন নীতিমালার আওতায় বাংলাদেশের অনুমোদিত ডিলার (এডি) ব্যাংকের সঙ্গে বিদেশি পেমেন্ট সার্ভিস প্রোভাইডারের বৈদেশিক মুদ্রা অথবা টাকায় সংরক্ষিত হিসাব থেকে রপ্তানিমূল্যে দেশে আনার ব্যবস্থা নিতে পারবে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলো। পাশাপাশি যথাযথ পেমেন্ট গ্যারান্টি থাকা সাপেক্ষে ঐ হিসাবের বিপরীতে ঋণ বা ওভারড্রাফ্ট সুবিধা নিতে পারবে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলো।

Share Button