চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:

চাঁপাইনবাবগঞ্জে নিখোঁজের তিনদিন পর রোহান নামে তিন বছরের এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার সন্ধ্যা ৭ টার দিকে সদর হাসপাতালের সেপটিক ট্যাংকি থেকে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়।
নিহত রোহান পৌর এলাকার মসজিদ পাড়ার ভেলুর মোড় মহল্লার সুজন আলীর ছেলে। তবে কি কারনে এই হত্যাকান্ড এ সর্ম্পকে কিছুই জানাতে পারেনি পুলিশ।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহবুব আলম খান জানান,‘ গত ৩১ ডিসেম্বর বিকেলে শিশুটি নিখোঁজ হয়। পরে অনেক খোঁজাখুজির পর না পেয়ে রোহানের পরিবার থানায় নিখোঁজ ডায়েরী করে। এরপরই রোহানকে উদ্ধারে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর একাধিক সংস্থা মাঠে নামে। শনিবার পৌর এলাকার বিভিন্ন মোড়ের সিসি টিভির ক্যামেরার ফুটেজ দেখে সন্দেহ হয় যে অজ্ঞাত একজন ব্যক্তি শিশুটিকে কোলে নিয়ে হাসপাতাল এলাকায় ঘোরাঘুরি করছে। এতে পুলিশের ধারনা হয় যে হয়তোবা শিশুটিকে হত্যা করে হাসপাতালের আশে পাশেই কোথাও রাখা হয়েছে। পরে খোজাঁখুজির এক পর্যায়ে সদর হাসপাতালের সেপটিক ট্যাংকি থেকে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়।’
তবে কি উদ্দেশ্যে এই হত্যাকান্ড এ বিষয়ে কিছুই জানাতে না পারলেও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরও জানান,‘ সিসি টিভির ফুটেজ পরীক্ষা করে শিশুটিকে নিয়ে আসা ওই ব্যক্তির পরিচয় শনাক্তে কাজ করছে পুলিশ। তাকে গ্রেফতার করা গেলেই এ হত্যাকান্ডের মোটিভ সর্¤úকে বিস্তারিত জানা যাবে এবং এ ঘটনায় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে’। শিশু রোহানের মরদেহ উদ্ধারের পর মসজিদপাড়া এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

এদিকে, শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য চাঁপাইনবাবগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

সট-০১ ঃ মোহাম্মদ মাহবুবুল আলম খান,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, চাঁপাইনবাবগঞ্জ

Share Button