উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন।

উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন জানিয়েছেন, পুরোদমে পরমাণু অস্ত্রের পরীক্ষা নিরীক্ষা শুরু করেছে তার দেশ। তৈরি হচ্ছে পরমাণু অস্ত্রসম্ভারের সাবমেরিন, মিসাইল।

আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন এই হুমকি কার্যত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জন্য। কারণ মার্কিন সরকারকে তুলোধনা করে কিম জানিয়েছেন উত্তর কোরিয়ার সবথেকে বড় শত্রু যুক্তরাষ্ট্র।

উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদসংস্থা কোরিয়ান সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সিকে দেওয়া তথ্যে কিম জানান, যুক্তরাষ্ট্রের পরমাণু ক্ষমতা নিয়ে বড়াই করা থামিয়ে দিতে পারে উত্তর কোরিয়া। এদিকে, নভেম্বর মাসেই কমিউনিস্ট দেশটির রাজধানী পিয়ংইয়ংয়ে মিলিটারি প্যারেডে বিশালাকার মিসাইলের প্রদর্শন করে উত্তর কোরিয়া।

বিশ্লেষকদের মতে, বিশালাকার হাতিয়ারটি হচ্ছে ‘ইন্টার কন্টিনেন্টাল ব্যালিস্টিক মিসাইল’ বা আন্তর্মহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্র।

এর আগেও বহুবার ট্রাম্প-কিম বাগযুদ্ধ দেখেছে বিশ্ব, তবে দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যস্থতায় কিছুটা হলেও সুর নরম করেছিল পরমাণু শক্তিধর এই দুই দেশ। ফের পরিস্থিতি জটিল হচ্ছে বলেই মনে করা হচ্ছে, যা সদ্য নির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের কাছে বেশ বড়সড় চ্যালেঞ্জ। কারণ শনিবার কিম জানিয়ে দেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট যেই হোক না কেন, তার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি উত্তর কোরিয়ার মনোভাব বদলে যাবে না।

Share Button