[ছবি : সংগৃহীত]

যুক্তরাজ্যে চিহ্নিত নতুন ধরণের করোনা ভাইরাস কানাডার অন্টারিওতেও পাওয়া গেছে। ডারহাম একালায় এক দম্পতির করোনা টেস্টের পর তার প্রমাণ মেলে। তারা এখন আইসোলেশনে এবং চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে রয়েছেন। ২৬ নভেম্বর (শনিবার) অন্টারিওর সহযোগী চিফ মেডিকেল অফিসার অফ হেলথ, ডাক্তার বারবারা ইয়্যাফ এক বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ডা. ইয়্যাফ জানিয়েছেন, এই মারাত্মক ভাইরাসটি অনেক বেশি ক্ষতিকর। যা আন্তর্জাতিক ভ্রমণকারীদের মাধ্যমে ছড়াচ্ছে। সেজন্য কানাডায় আগত এবং কানাডা থেকে বিভিন্ন দেশ ভ্রমণকারীদের উপর আবারও কড়া নিষেধাজ্ঞা জরুরি।

এরই মধ্যে ৬ জানুয়ারি পর্যন্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে আগত সমস্ত ফ্লাইট বাতিল করেছে কানাডা সরকার।

এদিকে অন্টারিতে ২৬ নভেম্বর থেকে তৃতীয় দফায় লক ডাউন চলছে। তা মেনে চলার জন্য জনগণকে আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্টুডো। সেইসঙ্গে ইয়্যাফিও অনুরোধ জানিয়েছেন, যতটা সম্ভব বাড়িতে থাকার এবং সমস্ত জনস্বাস্থ্যের পরামর্শ অনুসরণ অব্যাহত রাখার।

শনিবার দুপুরে ডাক্তার আরিফ ইত্তেফাকের সাথে বলেন। তিনি জানান, করোনার নতুন ভাইরাস পুরনো ভাইরাসের চেয়ে ৭০ গুণ বেশি শক্তিশালী। যা আক্রান্ত রোগের পাশ দিয়ে গেলেই তা আক্রমণের সম্ভাবনা রয়েছে!

ফাইজার এবং মডার্না ভেকসিন দেওয়া শুরু হয়েছে। তারপরও রোগীর পরিমাণ মোটেও কমছে না। গত চব্বিশ ঘণ্টায় ২,১০০টিরও বেশি করোনা কেস রিপোর্ট করা হয়েছে, আর ৪৮ ঘণ্টায় মারা গেছে।