ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির উদ্যোগে নসরুল হামিদ মিলনায়তনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম।

 পানি সম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামীম বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঠিক পদক্ষেপেই দ্রুত দেশে টিকা এসেছে। ইতোমধ্যে ৫৪ টি জেলায় টিকা পৌছে গেছে। আগামী ৭ তারিখ থেকে টিকা দান শুরু হবে। দুর্যোগ মোকাবিলায় বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বে শিক্ষকের ভূমিকা পালন করছেন। জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব বান কি মুন গত বছর বাংলাদেশ সফরে এসে এমন স্বীকৃতি দিয়েছেন।

মঙ্গলবার (২ ফেব্রুয়ারি) সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির উদ্যোগে নসরুল হামিদ মিলনায়তনে চক্ষু চিকিৎসা ক্যাম্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন।

পানি সম্পদ উপমন্ত্রী বলেন, করোনাকালে বিশ্বে যখন হিমশিম তখন বাংলাদেশের অর্থনীতির চাকা এবং জীবন-জীবিকা সচল রাখতে নেতৃত্ব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। যার দূরদর্শী নেতৃত্বের কারণে একটি মানুষ না খেয়ে মারা যায়নি। সে কারণেই যথাযথই তিনি দুর্যোগ মোকাবিলায় বিশ্বে শিক্ষকের ভূমিকা পালন করছেন।

এনামুল হক শামীম ‘বঙ্গবন্ধু কন্যাকে সাংবাদিক বান্ধব প্রধানমন্ত্রী’ উল্লেখ করে বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নিজেও সাংবাদিকতা করতেন। সে কারণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেও সাংবাদিক বান্ধব প্রধানমন্ত্রী। সাংগঠনিক কল্যাণে তিনি সব সময় এগিয়ে এসেছেন। সাংবাদিকদের কল্যাণ ফান্ড, আবাসনের ব্যবস্থা, দুর্যোগকালীন সময়ে পাশে দাঁড়িয়েছেন। অসুস্থ সাংবাদিকদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছেন। কে কোন দল করেন সেটা বিবেচনায় নেন না, যে কোন অসহায় সাংবাদিকদের পাশে দাঁড়ান। এই করোনাকালেও সাংবাদিকদের বিশেষ ভাতা দিয়েছেন। সাংবাদিকদের কল্যাণ ফান্ডে টাকা দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কল্যাণেই দেশে বেসরকারিখাতে টেলিভিশন ও পত্রিকা, রেডিও দিয়েছেন। এতে হাজার হাজার মানুষের কর্মসংস্থান হয়েছে। আবার সাংবাদিকদের ওয়েজ বোর্ডও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমলে দেওয়া হয়ে

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সহ-সভাপতি ওসমান গনি বাবুলের সভাপতিত্বে বক্তৃতা করেন, সন্ধানী জাতীয় চক্ষুদান সমিতির উপদেষ্টা ডা. মনিলাল আইন লিটু, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান খান, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাবেক সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন বাদশা, সাংগঠনিক সম্পাদক মাইনুল হাসান সোহেল, কল্যাণ সম্পাদক খালেদ সাইফুল্লাহপ্রমুখ।