চ্যাম্পিয়ন্স লিগে আগের দিন ঘরের মাঠে প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ের (পিএসজি) কাছে গোলে বিধ্বস্ত হয়েছে লিওনেল মেসির বার্সেলোনা। এবার শেষ ষোলোতে ধাক্কা খেল ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর জুভেন্টাসও

জুভরা অবশ্য ঘরের মাঠে হারেনি। তাদের হারের ব্যবধানও বার্সার মতো ওত বড় নয়। তবে পোর্তোর বিপক্ষে গোলের হারটা তাদের জন্য অপ্রত্যাশিতই বটে! গ্রুপপর্বে দুর্দান্ত ফুটবল উপহার দেয়া আন্দ্রে পিরলোর দল শেষ ষোলোর প্রথম লেগের লড়াইয়ে একদমই ছন্নছাড়া ছিল

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ছয়বারের লড়াইয়ে এবারই প্রথম জুভেন্টাসের বিপক্ষে জয় পেল পোর্তো। দুই অর্ধেই শুরুর বাঁশি বাজতে না বাজতেই তাদের কাছে গোল খেয়ে বিপদে পড়েছে জুভরা

ম্যাচে ৬৩ সেকেন্ডের মাথায় প্রথম গোল হজম করে জুভেন্টাস। সেটাও আবার নিজেদেরই ভুলে। গোলরক্ষক ভয়চেখ স্ট্যাসনি নিজেদের ডি বক্সে বল দিয়েছিলেন রদ্রিগো বেন্তানকুরকে। তিনি সেই বল ব্যাকপাস করেন গোলরক্ষককেই

দ্বিতীয়ার্ধের ১৯ সেকেন্ডের মাথায় আরও এক গোল হজম করে বসে জুভেন্টাস। ডান দিক থেকে উইলসন মানাফার পাস ডিবক্সে নিয়ন্ত্রণে নিচু শটে জাল কাঁপান মালির ফরোয়ার্ড মুসা মারেগা

৮২ মিনিটে জুভেন্টাসকে মূল্যবান অ্যাওয়ে গোল এনে দেন ফেদেরিকো চিয়েসা। বাঁ দিক থেকে রাবিওর ক্রস ডিবক্সে ফাঁকায় পেয়ে জোরালো শটে করেন তিনি

ম্যাচে নিজের ছায়া হয়েই ছিলেন রোনালদো। বলার মতো কোনো সুযোগ তৈরি করতে পারেননি তিনি