চরফ্যাশন (ভোলা) প্রতিনিধি।।

ভোলার চরফ্যাশনের উত্তর আইচা গ্রামে সোমবার সকালে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে আধা পাঁকা ঘর নির্মাণ কাজ শুরু করার অভিযোগ উঠেছে রসুলপুর ইউপি সদস্য আমির হোসেনের বিরুদ্ধে।
একই এলাকার আবুল কাশেম অভিযোগ করেন, উত্তর আইচা গ্রামের দিয়ারা ৪৫৩ নং খতিয়ানের ৪৩৫০, ৪৩৫১ দাগের ২৫ শতাংশ জমি নিয়ে রসুল পুর ইউপি সদস্য আমির হোসেন জমাদারগংদের সাথে বিরোধ চলে আসছিল। এ বিষয়ে সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে ১৯৩/২০ মোকদ্দমা রুজু করলে কাগজ পত্র পর্যালোচনা করে বিজ্ঞ বিচারক ওই জমি বেচা বিক্রয়, পাকা, আধা পাকা ঘর উত্তোলনসহ যাবতীয় সকল কার্যক্রম বন্ধ রাখার জন্য বিবাদীদের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রদান করেন এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এমপি ১০৮/২০ মামলা দায়ের করলে বিজ্ঞ ম্যাজিস্ট্রেট উক্ত জমিতে শান্তি ও শৃঙ্খলা বজায় রাখতে ১৪৪/১৪৫ ধারার আদেশ দেন। মামলার বিবাদী আমির হোসেন গংরা আদালতে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে উক্ত জমিতি সোমবার আধা পাঁকা ঘর উত্তোলন করেন। এবিষয়ে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সহযোগীতা কামনা করছি।
অভিযোগ প্রসংগে ইউপি সদস্য আমির হোসেন জমাদার বলেন- আমরা ওই জমিতে ৫০ বছর বসবাস করছি। পুরাতন ঘর ভেঙে নতুন ঘর করতেছি। তারা আমার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ তাদের জমি তাদের দখলে থাকা সত্তেও একের পর এক মিথ্যা মামলা দিয়ে আমাকে হয়রানী করছে।
শশীভূষণ থানার অফিসার ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম বলেন- বিবাদীরা তাদের পুরাতন ঘর ভেঙে নতুন ঘর উত্তোনল করেন। নতুন কোনো ঘর উত্তোনল কিংবা জমি দখলে গেলে থানা পুলিশ বাধা প্রদান করা সহ আইনগত ব্যবস্থা নিবে।