রংপুর অফিস : আলোচিত ইসলামী বক্তা আবু ত্ব-হা মোহাম্মদ আদনান ও তার দুই সঙ্গীকে জবানবন্দি শেষে পরিবারের জিম্মায় ছেড়ে দিয়েছে আদালত। শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টার দিতে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়। এর আগে রংপুর মেট্রোপলিটন জুডিশিয়াল আদালতের বিচারক কেএম হাফিজুর রহমানের আদালতে তাদের জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়।
কোর্ট ইন্সপেক্টর নাজমুল ইসলাম জানান, রাত ৯টার দিকে ইসলামী বক্তা আবু ত্বহাসহ তিনজনকে মেট্রোপলিটন জুডিশিয়াল আদালতের বিচারক কেএম হাফিজুর রহমানের আদালতে নেওয়া হয়েছে। পরে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেওয়ার পর তাদের পরিবারের জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়।
রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার (অপরাধ) আবু মারুফ হোসেন জানান, ব্যক্তিগত কারণে স্বেচ্ছায় আত্মগোপন করেছিলেন আবু ত্ব-হা মোহাম্মদ আদনানসহ তার ৩ সঙ্গী।

এদিকে ‘জিজ্ঞাসাবাদে আবু ত্ব-হা পুলিশকে জানিয়েছেন, ঘটনার দিন রাজধানীর গাবতলী থেকে স্ত্রীর মোবাইল নম্বরে কল দিয়ে সর্বশেষ কথা বলেন তিনি। এরপর মোবাইল ফোন বন্ধ করে দেন। সেখান থেকে চলে যান গাইবান্ধা সদর উপজেলার ত্রিমোহনীতে এক বন্ধুর বাড়িতে। এরপর থেকে তিনি কারও সঙ্গে যোগাযোগ করেননি। ব্যক্তিগত কারণে বন্ধুর বাড়িতে আত্মগোপনে ছিলেন।

এখানে তার সঙ্গে দুই সঙ্গী ছিলেন। তারা হলেন গাড়িচালক আমির উদ্দিন ও মুহিত। অপর সঙ্গী মুজাহিদকে বগুড়ায় রেখে যান। এক সঙ্গীকে বন্ধুর বাড়িতে রেখে অপরজনকে নিয়ে শুক্রবার বিকালে রংপুর মহানগরীর মাস্টারপাড়া এলাকায় শ্বশুরবাড়িতে যান আবু ত্ব-হা। সেখান থেকে পুলিশ তাদের উদ্ধার করে।