চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
গীমান্তবর্তী জেলা চাঁপাইনবাবগঞ্জে গত ২৪ ঘন্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে আরও ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এনিয়ে জেলায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা ১০৮ জন। গত ২৪ ঘন্টায় ৫৮১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৬৬ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এখন পর্যন্ত জেলায় মোট করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৪০৭৪ জন। করেনা সংক্রমণের হার ১১ দশমিক ৩৫ শতাংশ। মঙ্গলবার (২৯ জুন) দুপুরে সিভিল সার্জন ডা. জাহিদ নজরুল চৌধুরী মুঠোফোনে তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন।
সিভিল সার্জন জানান, করোনায় নিহত ৪ জন সকলেই সদর উপজেলার বাসিন্দা। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আক্রান্ত ৬৬ জনের মধ্যে সদর উপজেলায় রয়েছে ২৯ জন। এছাড়াও শিবগঞ্জে ২০, গোমস্তাপুরে ১৬ ও ভোলাহাট উপজেলায় ১ জন আক্রান্ত হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে রয়েছে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আরটিপিসিআর ল্যাবে ২৩ জন। ১৩৭ জনের নমুনা সংগ্রহে এই ফলাফল এসেছে। সংক্রমনের হার ১৬ দশমিক ৭৮ শতাংশ। জিন এক্সপার্ট পরীক্ষায় ৪ জনের নমুনা সংগ্রহ করে ৩ জনের পজেটিভ এসেছে। এছাড়াও র‍্যাপিড এ্যান্টিজেন্ট পরীক্ষায় ৪৪০ জনের নমুনা সংগ্রহ করে ৪০ জনের করোনা পজেটিভ হয়েছে এবং সংক্রমণের হার ৯ দশমিক ৯ শতাংশ।
ডা. জাহিদ নজরুল চৌধুরী জানান, জেলায় এ পর্যন্ত নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ২৩ হাজার ৫৯৩ জনের। তাদের মধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪০৭৪ জন। সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ৮৮৩ জন। বর্তমানে চিকিৎসাধীন করোনা রোগী রয়েছেন ১০৮৩ জন।
সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানা যায়, করোনায় জেলার সদর উপজেলায় সবচেয়ে বেশি মানুষ নিহত হয়েছে। মোট ১০৮ জনের মধ্যে সদর উপজেলায় ৭১, শিবগঞ্জে ২৪, গোমস্তাপুরে ৭, নাচোলে ৪ ও ভোলাহাট উপজেলায় ২ জন মারা গেছেন। জুন মাসের দ্বিতীয় ও তৃতীয় সপ্তাহে আরটিপিসিআর ল্যাবে করোনা সংক্রমণ হার যথাক্রমে ২২.৭৪ শতাংশ ও ২৮.৭৮ শতাংশ। গত ২৪ ঘন্টায় করোনা সংক্রমণের হার ১১ দশমিক ৩৫ শতাংশ।
২৫০ শয্যা বিশিষ্ট চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা হাসপাতালের করোনা ডেডিকেটেড ইউনিটের তথ্য প্রদান কর্মকর্তা ডা. আহনাফ শাহরিয়ার জানান, করোনা ইউনিটের ৭২ শয্যার বিপরীতে ৭৪ জন রোগী চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন। গত ২৪ ঘন্টায় ৫ জন রোগী ছাড় পেয়েছেন এবং নতুন করে আরও ৬ জন ভর্তি হয়েছেন। এখন পর্যন্ত করোনা ইউনিটে মোট ভর্তি হওয়া রোগীর সংখ্যা ৫৫২ জন এবং সুস্থ হয়ে ছাড়পত্র নিয়ে বাসায় ফিরে গেছেন ৪৭৭ জন করোনা রোগী।