• মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ১১:২৯ অপরাহ্ন

২১ আগস্ট মামলা : রাষ্ট্রনিযুক্ত আইনজীবীর যুক্তিতর্ক পেশ

আপডেটঃ : মঙ্গলবার, ২৩ জানুয়ারী, ২০১৮

২০০৪ সালের ২১ আগস্ট রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে আওয়ামী লীগ আয়োজিত সন্ত্রাসবিরোধী সমাবেশে গ্রেনেড হামলা চালিয়ে হতাহতের ঘটনায় আনা মামলায় পলাতক আসামি তারেক রহমানের পক্ষে রাষ্ট্রনিযুক্ত আইনজীবীর যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ হয়েছে।
রাজধানীর পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডে পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারের পাশে স্থাপিত ঢাকার ১ নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক শাহেদ নূর উদ্দিনের আদালতে এ মামলার বিচার চলছে। আজ মঙ্গলবার মামলার পলাতক আসামি বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পক্ষে রাষ্ট্রনিযুক্ত আইনজীবী এ কে এম আকতার হোসেন যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ করেন। তিনি আসামি তারেক রহমানের পক্ষে যুক্তিতর্ক পেশ শুরু করেন।
যুক্তিতর্কে তিনি বলেন, তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মামলায় আনীত অভিযোগের সমর্থনে সুস্পষ্ট কোনো সাক্ষী নেই। মামলার এজাহার প্রথম অভিযোগপত্র, বিভিন্ন জিডিতে আসামি তারেক রহমানের নাম ছিলো না। মামলাটির বিচার চলাকালীন ৬১ জনের সাক্ষ্য গ্রহণের পর এক আবেদনের প্রেক্ষিতে মামলার পুনঃতদন্তের আদেশ হয়। পুনঃতদন্ত শেষে তদন্তকারী কর্মকর্তার দাখিল করা সম্পূরক অভিযোগপত্রে তারেক রহমানকে সম্পৃক্ত করা হয়। যেখানে বলা হয়, ২১ আগস্ট হামলাকারীদের ঘটনা বাস্তবায়নে সব ধরনের প্রশাসনিক সহযোগিতার আশ্বাস দেন তারেক রহমান। ওই সময় তারেক রহমান বিএনপি এবং চার দলীয় জোট সরকারের দায়িত্বশীল পর্যায়ের কেউ ছিলেন না এবং তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমাণিত হয়নি দাবি করে রাষ্ট্রনিযুক্ত আইনজীবী তারেক রহমানের খালাসের আর্জি পেশ করেন।
তারেক রহমানের পক্ষে রাষ্ট্রনিযুক্ত আইনজীবীর যুক্তিতর্কের প্রেক্ষিতে রাষ্ট্রপক্ষের প্রধান কৌঁসুলি সৈয়দ রেজাউর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, ২১ আগস্ট ভয়াবহ গ্রেনেড হামলার ষড়যন্ত্রের সঙ্গে তারেক রহমান জড়িত রাষ্ট্রপক্ষ তার সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছে। এ আসামির বিরুদ্ধে ২৭ জন সাক্ষী সাক্ষ্য দিয়েছেন। তারেক রহমান তার তৎকালীন রাজনৈতিক কার্যালয় বনানীর হাওয়া ভবনে ষড়যন্ত্র বৈঠক করেছেন তাও প্রমাণিত হয়েছে বলে দাবি করেন রাষ্ট্রপক্ষের প্রধান কৌঁসুলি। ওই বৈঠকের আলোকে হামলাকারীদের সার্বিক সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। এ মামলায় কাউকে উদ্দেশ্যমূলকভাবে জড়ানো হয়নি। অপরাধের সম্পৃক্ততার ভিত্তিতেই ঘটনায় জড়িতরা মামলার আসামি হয়েছেন বলে জানান সৈয়দ রেজাউর রহমান। রাষ্ট্রপক্ষ আসামিদের আইন অনুযায়ী সর্বোচ্চ সাজা প্রত্যাশা করেন।
এছাড়াও আজ যুক্তিতর্ক পেশ করার ৩৫তম দিনে আসামি হাফেজ মাওলানা ইয়াহিয়ার পক্ষে যুক্তিতর্ক পেশ শুরু করেছেন তার আইনজীবী মাঈনুদ্দিন মিয়া। কাল বুধবারও মামলার তারিখ ধার্য রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ