• বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ০২:০৭ অপরাহ্ন

খালেদা জিয়া ছাড়া সংসদ নির্বাচন গাজীপুর-খুলনা সিটির মতো হবে: মির্জা আব্বাস

আপডেটঃ : শনিবার, ৩০ জুন, ২০১৮

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেছেন, অনেকেই বলেন, বিএনপির নির্বাচনে যাওয়া দরকার। আমিও তাদের সঙ্গে একমত। তবে তার চেয়েও বেশি দরকার খালেদা জিয়ার মুক্তি। কেননা বেগম খালেদা জিয়া ছাড়া জাতীয় নির্বাচন গাজীপুর-খুলনা সিটি নির্বাচনের মতো হয়ে যাবে।
তিনি বলেন, শুনছি এখন নাকি আবার বিএনপি নেতাকর্মীদের লিস্ট করা হচ্ছে। এসব লিস্ট ফিস্ট দিয়ে কাজ হবে না। বিএনপির আন্দোলনে লিস্ট বাতাসে উড়ে যাবে। যারা জেলে আছেন তারা অত্যন্ত মানবেতার জীবন যাপন করছেন। জেল খানায় একজন সুস্থ মানুষ অসুস্থ হয়ে যায়।
শনিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি হলে চলমান গণতান্ত্রিক আন্দোলনে নির্যাতনের শিকার পরিবারকে আর্থিক সহায়তা প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি এই মন্তব্য করেন। এ আর্থিক সহায়তা প্রদান করে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী হেল্প সেল। ৬টি পরিবারকে ৫০ হাজার টাকা করে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়। এর আগে বিগত আন্দোলনে ভূমিকা রাখতে গিয়ে পুলিশ, র‌্যাব ও সরকার দলীয় সন্ত্রাসীদের হাতে গুম-খুন-পঙ্গু হওয়া ১২৪টি পরিবারকে ৬১ লক্ষ ৬৪ হাজার ৫০০ টাকা অনুদান প্রদান করে জাতীয়তাবাদী হেল্প সেল।
মির্জা আব্বাস বলেন, আজকে বাংলাদেশে ঘরে ঘরে স্বজন হারা মানুষের কান্নার রোল। আমরা সরকারের কাছে আহ্বান জানাই গুম হওয়া নেতাকর্মীদের ফিরিয়ে দিন। আর খুনের সঙ্গে জড়িতদের বিচারের ব্যবস্থা করুন। দল ক্ষমতায় আসলে এসব কর্মীদের পুনর্বাসন করা হবে। বেগম খালেদা জিয়া জেল থেকে বের হয়ে আসবে এবং বিএনপি ক্ষমতায় আসবে কেউ ঠেকাতে পারবে না।
তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের মধ্যে বিএনপি ভীতি। তারা বেগম খালেদা জিয়াকে ভয় পায়। তারেক রহমান কখন দেশে চলে আসেন। তারা মনে করে বাংলাদেশের সব মানুষ তাদের শত্রু। মানুষ তাদের শত্রু ছিল না। তাদের অপশাসন, দুর্নীতি আর লুটপাটের কারণে শত্রু হয়ে গেছে।
গাজীপুর-খুলনা নির্বাচন প্রসঙ্গে মির্জা আব্বাস বলেন, গাজীপুর-খুলনা সিটি নির্বাচনে সরকার কারচুপি করে বিজয়ী হয়েছে। তফসিল ঘোষণার পরপর বিএনপি নেতাকর্মীদের গ্রেফতার হুমকি-ধামকি দিয়ে এলাকা ছাড়া করেছে। বিএনপি কৌশলগত কারণে প্রতিরোধ করেনি। তবে আগামীতে প্রতিরোধ করা হবে। জাতীয়তাবাদী হেল্প সেলের সদস্য আরাফাতুল রহমান আপেলের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য দেন, বিএনপির শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, নিলুফার চৌধুরী মনি, যুবদল ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মওলা শাহীন, ছাত্রদলের রাজিব আহসান পাপ্পু, জাতীয়তাবাদী হেল্প সেলের সম্বয়ক সুমন আহসানসহ গুম-খুন হওয়া পরিবারের সদস্যরা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ