• বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৫৭ অপরাহ্ন

প্রধানমন্ত্রীকে মান্না জাতিসংঘে প্রমাণ দেন আপনি কত শক্তিশালী

আল ইসলাম কায়েদ
আপডেটঃ : রবিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৭

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ‘বলিষ্ঠ ভূমিকা’ দেখতে চান নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না।

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে যদি প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘে সফল হতে পারেন তাহলে সাদুবাদ জানানোর কথাও বলেছেন তিনি।

শনিবার বিকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক মানববন্ধন কর্মসূচিতে তিনি এ কথা বলেন।

মান্না বলেন, ‘আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে জানতে চাই, উনি কী নিয়ে যাচ্ছেন? আপনি চীনের দৃষ্টিভঙ্গি ও রাশিয়ার দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তন করতে পারবেন? ’

তিনি বলেন, ‘আমাদের দেশের ১৭ কোটি মানুষ এই একটা প্রশ্নে আপনাকে সমর্থন করবে। আমরা দেখতে চাই, আপনি কত শক্তিশালী, কত ক্ষমতাশালী। সংসদে গিয়ে নয়, জাতিসংঘে গিয়ে তার প্রমাণ দেবেন।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ করে মান্না বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের ফিরে যেতে মিয়ানমারকে বাধ্য করতে আপনাকে চাপ তৈরি করতে হবে। এজন্য আপনাকে আন্তর্জাতিক সমর্থন আদায় করতে হবে বিশেষ করে রাশিয়া, চীন ও ভারতের।’

নাগরিক ঐক্যের এই আহ্বায়ক বলেন, ‘সরকারকে বলি, কূটনৈতিক তৎপরতা আরও জোরদার করুন।’

তিনি বলেন, ‘আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে আশা করছি, আপনি যদি করতে পারেন এই প্রেস ক্লাবের সামনে আমি, সুব্রত চৌধুরী, সুকোমল বড়ুয়া আবার মানববন্ধন করে আপনাকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ দেব। কিন্তু কিছুই করবেন না, দেশে ফিরে গলাবাজি করবেন, ওই গলাবাজি বন্ধ হয়ে যাবে।’

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে মান্না আরও বলেন, ‘আপনি (প্রধানমন্ত্রী) কেবলমাত্র ওই দূতাবাসের লোকজনকে ডেকে দেখাবেন কেন? এখনও কেন জাতিসংঘের সদস্য দেশের রাষ্ট্রপ্রধানদের ডাকছেন না? এই কথাটা বলছি, এই কারণে আমাদের মনের মধ্যে সংশয় আছে যে, শেষ পর্যন্ত এই ১০/১১ লাখ রোহিঙ্গাদের আপনি ফেরত পাঠাতে পারবেন কিনা? ’

তিনি বলেন, ‘টেলিভিশনে দেখাচ্ছে, টেকনাফ-উখিয়ায় ত্রাণ যাচ্ছে মেলা। ত্রাণের ট্রাকের লাইন ১৪ কিলোমিটার লম্বা, খাদ্যদ্রব্যসহ অন্যান্য সামগ্রী বিভিন্ন দেশ পাঠাচ্ছে, আমরা পাঠাচ্ছি। এত লম্বা ত্রাণের লাইনের পরও রোহিঙ্গারা খাবার পাচ্ছে না, ত্রাণ পাচ্ছে না।’

এ সময় বিএনপির রিলিফ টিমকে ত্রাণ বিতরণ করতে না দেয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন মান্না।

তিনি বলেন, ‘টেলিভিশন বলছে, এই ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করার জন্য কোনো সুষ্ঠু ব্যবস্থা নাই। আপনারা (সরকার) তাদের (বিএনপি) যেতে দেবেন না, তাদের ত্রাণের সব ট্রাক ওখান থেকে সরিয়ে দিয়েছেন।’

আদর্শ নাগরিক আন্দোলনের উদ্যোগে মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের ওপর হত্যাযজ্ঞ বন্ধ ও তাদের নাগরিকত্ব দিয়ে ফিরিয়ে নেয়ার দাবিতে ‘সর্ব ধর্মীয় মানববন্ধন’ হয়।

মানববন্ধনের পর সংগঠনটি আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর ঢাকার মিয়ানমার দূতাবাস, বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, ঢাকায় জাতিসংঘ ও ওআইসি কার্যালয়ে স্মারকলিপি পেশ, ২৭ সেপ্টেম্বর কক্সবাজারের উখিয়াসহ বিভিন্ন শরণার্থী শিবিরে চিকিৎসাসেবাসহ ত্রাণ বিতরণ এবং ২৬ মার্চ মিয়ানমারের উদ্দেশ্যে টেকনাফ থেকে লং মার্চ করার ঘোষণা দেয়।

সংগঠনের সভাপতি মুহাম্মদ মাহমুদুল হাসানের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, মুসলিম লীগের মহাসচিব শেখ জুলফিকার বুলবুল চৌধুরী, ন্যাপের মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভুঁইয়া, এনডিপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মঞ্জুর হোসেন ঈসা, নাগরিক ফোরামের চেয়ারম্যান আবদুল্লাহহিল মাসুদ, গণসংস্কৃতির সভাপতি এস আল মামুন, খাদিজাতুল কোবরা মহিলা মাদ্রাসার পরিচালক মুফতি নাজমুল হাসান প্রমুখ বক্তব্য দেন।

Share Button


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

You cannot copy content of this page

You cannot copy content of this page